ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

হাইমচরে যাত্রীবাহী ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ ২০

প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বি.এম. হান্নান, চাঁদপুর : চাঁদপুরের হাইমচর মাঝেরচর এলাকায় মেঘনা নদীতে একটি যাত্রীবাহী ট্রলার ডুবে অন্ততঃ ২০ জন নিখোঁজ রয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ৬০/৭০ জন যাত্রী নিয়ে ‘এমভি রবিন’ নামের ট্রলারটি ডুবে যায়। স্থানীয় জেলেরা বেশ কয়েকজন যাত্রীকে তীরে তুলতে সক্ষম হয়।
উদ্ধার করা ১০ যাত্রীকে হাইমচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। হাইমচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহতরা হচ্ছেন- মো. সুমন (২৫), আ. করিম মাস্টার (৫৫), শ্যামলী বেগম (২২), শাহআলম (৪০), মনির হোসেন (২৫), শামসুন্নাহার (৪০), মনোয়ারা বেগম (৩৫), পেয়ারা বেগম (২৮), সজীব আখন্দ (১৮) ও জান্নাত (৪)। এদের বাড়ি হাইমচর ও ঈশানবালা এলাকায়।
খবর পেয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম দুপুর ১টার দিকে হাইমচর ঘটনাস্থলে যান। তিনি দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। মন্ত্রী আহতদের চিকিৎসার জন্য জনপ্রতি ৫ হাজার টাকা করে অনুদান দেন।
চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সবুর ম-ল, হাইমচর উপজেলা চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটোয়ারী ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম সরোয়ার কামাল এ সময় ত্রাণমন্ত্রীর সাথে ছিলেন।
ট্রলারের যাত্রী ও হাইমচর বিআরডিবির কর্মকর্তা মো. মনির হোসেন জানান, নারী-শিশুসহ ৬০/৭০ জন যাত্রী নিয়ে ট্রলারটি হাইমচর থেকে ঈশানবালা এলাকার দিকে যাচ্ছিল। মাঝেরচর এলাকায় ঘন কুয়াশার কারণে একটি তেলবাহী ট্যাংকারের ধাক্কায় ট্রলারটি ডুবে যায়। সঙ্গে সঙ্গে আশপাশের নৌকার জেলেরা কয়েকজন যাত্রীকে তীরে তুলতে সক্ষম হন।
হাইমচর উপজেলা চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটোয়ারী জানান, উদ্ধার করা যাত্রীদের হাইমচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তবে নিখোঁজ ট্রলারটির সন্ধান এখনো পাওয়া যায়নি।
হাইমচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়ালিউল্লাহ ওলি জানান, সকালে মেঘনা নদীতে ট্রলার দুর্ঘটনা ঘটে। কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে বলে যাত্রীরা জানিয়েছে। ট্রলার এবং নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারে তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন