ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

যুদ্ধ বাধলে পাকিস্তানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ঠেকাতে পারবে না ভারত

রুশ পরমাণু বিশেষজ্ঞর অভিমত

প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : পাকিস্তানি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ঠেকাতে পারবে না ভারত। রাশিয়ার এক পরমাণু বিশেষজ্ঞ সম্প্রতি এমন মন্তব্যই করেছেন। তিনি বলেছেন, যদিও ভারত ইতোমধ্যেই ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী ব্যবস্থার উন্নয়নে ব্যাপক বিনিয়োগ করেছে। তারপরেও এটা বলা যায় যে কোন কারণে যদি ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ লেগে যায় তাহলে পাকিস্তানি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ভারত হয়তো পুরোপুরি প্রতিরোধ করতে পারবে না। কার্নেগি মস্কো সেন্টারের নন-প্রলিফারেশন প্রোগ্রামের সিনিয়র গবেষক পিতর তোপিচাকানোভ এসব কথা বলেছেন। তিনি বলেন, যতোদূর জানা যায় আগামী ১০ বছরে পরমাণু অস্ত্র এবং সক্ষমতা উন্নয়নে ব্যাপক অর্থ ব্যয়ের পরিকল্পনা রয়েছে ভারতের। কিন্তু তা সত্ত্বেও যুদ্ধ বেধে গেলে পাকিস্তানি হামলা থেকে নিজ ভূমি রক্ষা করতে পারবে বলে মনে হয় না।
ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী ব্যবস্থা উন্নয়নে ভারত এবং ইসরাইলের মধ্যে ব্যাপকভিত্তিক সহযোগিতা চলছে। এছাড়া রাশিয়ার কাছ থেকে ভারত এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নেয়ারও চেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি বলেন, এতোসব সত্ত্বেও পাকিস্তানি ক্ষেপণাস্ত্র কার্যকরভাবে প্রতিহত করতে পারে এমন ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা তৈরি করা থেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে ভারত।
এর আগে এক খবরে বলা হয়, মাঝারি পাল্লার ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপণ যোগ্য শাহিন-৩ মিসাইলের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করেছে পাকিস্তান। সর্বোচ্চ ২,৭৫০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম পাকিস্তানে প্রস্তুত শাহিন-৩ নামের ক্ষেপণাস্ত্রটি। এর রেঞ্জের মধ্যে চলে আসছে ভারতের অনেক শহরই। এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার মাধ্যমে ভারত-পাকিস্তান অস্ত্র প্রতিযোগিতার ধারাবাহিকতা চলে আসছে। পাকিস্তানের ইন্টার-সার্ভিসেস পাবলিক রিলেশনস সূত্রে বলা হয়, মাঝারি পাল্লার এই ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু অস্ত্র বহনে সম্পূর্ণ সক্ষম। পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের সময় পাকিস্তানের স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানস ডিভিশনের উচ্চপদস্থ সেনা অফিসাররা ছাড়াও ছিলেন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানী ও প্রকৌশলীরা। পার্সটুডে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Md Borhan Uddin ২১ মে, ২০১৬, ১০:২৮ এএম says : 2
No war We need peace.
Total Reply(0)
ABDUS SHAHID CHOWDHURY ২৪ মে, ২০১৬, ৫:৩৮ পিএম says : 0
NO WAR PLEASE.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন