ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

উন্মোচিত হচ্ছে নতুন দিগন্ত

ছয় লেনে বেনাপোল যশোর-ঢাকা হাইওয়ে

মিজানুর রহমান তোতা | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

দেশের বৃৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপোল থেকে যশোর, নড়াইল ও ভাটিয়াপাড়া ছুঁয়ে এশিয়ান হাইওয়ে সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলছে জোরেশোরে। ইতোমধ্যে ল্যান্ড সার্ভে ও সয়েল টেস্ট সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে রোড ডিজাইনসহ অন্যান্য কাজ। সড়কটি হবে ছয় লেনের। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের যশোর নির্বাহী প্রকৌশলী এস এম মোয়াজ্জেম হোসেন গতকাল দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।

সড়কটি নির্মাণের কারণে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের একটা বড় অংশের সাথে রাজধানী ঢাকার যোগাযোগ, ব্যবসা-বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে নতুন এক দিগন্ত উম্মোচিত হতে যাচ্ছে বলে মনে করেন সাধারণ মানুষ। এতে রাজধানীর সঙ্গে বেনাপোলের দূরত্ব কমে যাবে ৭০ কিলোমিটার। সূত্র জানায়, ২০১০ সালের প্রথমদিকে এশিয়ান হাইওয়ে সড়ক নির্মাণের ব্যাপারে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এডিবির অর্থায়ণে সড়কটি নির্মাণের ব্যাপক তোড়জোড়ও চলে। কিন্তু পরবর্তীতে তা ফাইলবন্দী হয়ে পড়ে।

সূত্র মতে, যশোর, বেনাপোল, ভোমরাসহ দক্ষিণ-পশ্চিমের একটা বড় অংশের ব্যবসা-বাণিজ্য অর্থনীতির গতি সৃষ্টির জন্য সড়কটি নির্মাণ খুবই জরুরি ছিল। বেনাপোলের সাথে ঢাকার সরাসরি ট্রেন সার্ভিস চালু হচ্ছে। এর পাশাপাশি ছয় লেনের এই সড়ক নির্মাণ গোটা অঞ্চলের জন্য সফলতা আনবে। পাল্টে যাবে এ অঞ্চলের সামগ্রিক দৃশ্যপট।

এশিয়ান হাইওয়ে এই সড়কটিতে দেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপোল ছাড়াও যশোর, নড়াইল, শিল্পশহর নওয়াপাড়া সাথে রাজধানীর দূরত্ব কমে যাবে। সহজ হবে আমদানি ও রফতানি। সাশ্রয় হবে প্রতিমাসে বিপুল পরিমাণ অর্থের জ্বালানি তেল। যশোর, খুলনা ও সাতক্ষীরাসহ এ অঞ্চলের কৃষি ও শিল্পপণ্যের অভ্যন্তরীণ চালানও হবে দ্রæত।

বেনাপোল থেকে যশোর মাগুরা হয়ে রাজধানীতে যাতায়াত ও পণ্য পরিবহনের দূরত্ব ২শ’ ৮০ কিলোমিটার। আর যশোর ঝিনাইদহ হয়ে আরো বেশি অর্থাৎ ৩শ’১২ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে রাজধানীতে পৌঁছাতে হয়। সড়কটি নির্মিত হলে যশোর থেকে খুব অল্পসময়ে সবজি রাজধানীতে পৌঁছানো যাবে। যশোর থেকে ঢাকা হয়ে কুমিল্লা, নারায়ণগঞ্জ ও নোয়াখালীসহ বিভিন্নস্থানে যায় মাছের রেণু পোনা। দূরত্ব বেশি হবার কারণে পচনশীল পণ্য অভ্যন্তরীণ আমদানি-রফতানিতে ব্যবসায়ীদের দুর্ভোগ ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে হয়। সড়কটি কৃষি ও শিল্পপণ্যের অভ্যন্তরীণ চালানে বেশ গতি সৃষ্টি করবে। তাছাড়া সহজতর হবে ভারতের সাথে বাংলাদেশের আমদানি ও রফতানি। যশোর ও বেনাপোলের পথে স্বল্পসময়ে ঢাকা ও কোলকাতার মধ্যে সরাসরি যোগাযোগ স্থাপন হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
মেহেদী হাসান ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:২০ এএম says : 0
ভালো সংবাদ। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে এলাকার চেহারা পালটে যাবে
Total Reply(0)
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:২১ এএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এভাবেই এগিয়ে যাক
Total Reply(0)
সাখাওয়াত হোসেন উজ্জ্বল ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:২১ এএম says : 0
ইনশায়াল্লাহ একে একে সারাদেশে এভাবেই নতুন দিগন্তের উম্মোচন হতে থাকবে
Total Reply(0)
Mohi Uddin ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:২২ এএম says : 0
এজন্য বর্তমান সরকারকে অসংখ্যা ধন্যবাদ
Total Reply(0)
কাওসার আহমেদ ১৬ জুলাই, ২০১৯, ৯:২৫ এএম says : 0
খবরটি পড়ে খুব ভালো লাগলো
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন