ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কুশিয়ারা ডাইক ও নদীভাঙন পরিদর্শনে দুই মন্ত্রী

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

নবীগঞ্জে বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম।

গতকাল বৃহস্পতিবার নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাক, আউশকান্দি, ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী এলাকায় বন্যায় কবলিত গ্রাম ও ঝুঁকিপূর্ণ বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও নদী ভাঙন পরিদর্শন করেন। দুপুর ১২টায় মন্ত্রীদ্বয় স্থানীয় সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদকে সাথে নিয়ে শেরপুর লঞ্চঘাট থেকে নৌকা যোগে কুশিয়ারা নদীর ভাঙন ও বিবিয়ানা পাওয়ার প্লান্ট রক্ষায় নদীর তীরবর্তী এলাকা পরিদর্শন করেন। পরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দীঘলবাক ইউনিয়নের বিবিয়ানা নর্থপ্যাড নিকটবর্তী মাঠে বন্যা কবলিত মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

হবিগঞ্জ জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ, সাবেক সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. শাহ কামাল, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ হাশিম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী প্রমুখ।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার বন্যার্ত মানুষের পাশে অতীতে ছিল বর্তমানেও আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে। পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রী আমরা বরাদ্দ করেছি।
পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেন, কুশিয়ারা নদীর দুই ক‚ল রক্ষায় ৭.৪ কি.মি এলাকা বাধ নির্মাণের জন্য মাস্টারপ্লানের মাধ্যমে ৫শ’ ১৮ কোটি টাকার একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন