ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

গণপিটুনিতে জড়িত সবাইকে শাস্তি পেতে হবে

সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

গুজবে বিশ্বাস করে গণপিটুনির মতো অন্যায় কাজে অংশ না নেয়ার আহ্বান জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, যারা বিবেচনা না করে আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছে, যারা গণপিটুনিতে অংশ নিচ্ছেন, তাদের একজন বা একশ’ জনও যদি এমন ঘটনা ঘটান, শাস্তি একই রকম হবে। এই ধরনের হত্যাকান্ড ঘটলে আমরা দোষীদের অবশ্যই আইনের মুখোমুখি করব। আইন অনুযায়ী তাকে শাস্তি পেতেই হবে।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া ও পরস্পর পরস্পরের মাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করে অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটানো হচ্ছে, যেগুলো কারোও কাম্য নয়। এসবের কোনোও ভিত্তি নেই। এ ধরনের কোনও ঘটনা আর যেন না ঘটে। যারা কোনও বিবেচনা ছাড়াই আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছেন, তাদের প্রতি অনুরোধ, আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। যদি কারো বিষয়ে সন্দেহ হয়, তাহলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে সোপর্দ করুন। তাদের ফোনে জানান, অথবা ৯৯৯ প্রচলিত রয়েছে সেখানে জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গণপিটুনি দিয়ে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের ভিডিও দেখে শনাক্ত করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি। ইতোমধ্যে ৮১ জনকে গ্রেফতার করেছি, আরও গ্রেফতার করব। এখন পর্যন্ত গণপিটুনিতে সারাদেশে নিহত হয়েছেন ৬ জন, আহত হয়েছে ১৫ জন, এ পর্যন্ত মামলা হয়েছে ৯টি, জিডি হয়েছে ১৫টি এবং সর্বমোট গ্রেফতার করা হয়েছে ৮১ জন। দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদের ইমামদের মাধ্যমে এ বিষয়ে সচেতন করার কাজ চলছে। মানসিক প্রতিবন্ধীরাই গণপিটুনির শিকার হচ্ছেন বেশি। এনজিও কর্মীদেরও এ ধরনের ঘটনার শিকার হতে হয়েছে। আমরা দেখেছি ব্যক্তিগত আক্রোশে ধামরাইয়ে রটনা রটিয়ে গণপিটুনির ঘটনা ঘটেছে। সামাজিক শাসনের অবক্ষয়ে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

গণপিটুনির ঘটনা বিচার বিভাগ ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অনাস্থার কারণেই হচ্ছে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বসে নেই। তারা কাজ করছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সঠিকভাবে কাজ করছে। বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করছে। ন্যায়বিচার নিশ্চিত করছে। আস্থাহীনতা নেই। এ ধরনের ঘটনায় রাজনৈতিক ইন্ধন আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।

মামলাগুলো দ্রুত বিচারের আওতায় নিয়ে আসা হবে কিনা- প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, আমরা মামলাগুলোর দ্রুত সম্ভব অভিযোগ দিয়ে দেবো। তাড়াতাড়ি যাতে বিচার হয় সেটারও আমরা ব্যবস্থা নেবো। দ্রুত বিচার হলেই যে খুব তাড়াতাড়ি বিচার হবে, তেমন তো কোনো কথা নয়। আমরা কত তাড়াতাড়ি অভিযোগপত্র দিতে পারি সেটাই বড় ব্যাপার।

স¤প্রতি বাড্ডায় এক নারীকে গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনা নিয়ে মন্ত্রী বলেন, এটা সারা দেশবাসীকে ব্যথিত করেছে। আমরা এ ঘটনা খুব গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি। কেন ঘটনা ঘটালো, ঘটনার ভিডিওফুটেজ দেখে আমরা সাতজনকে গ্রেফতার করেছি, যারা যারা ছিল সবাইকে শনাক্ত করে ব্যবস্থা নেবো।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন