ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

আনিকার লাশ ৭০ দিন পর তোলা হলো

আদালতের নির্দেশ

আদমদীঘি (বগুড়া) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ঢাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে মারা যাওয়া বগুড়ার গৃহবধূ আনিকা নওশিন সারার লাশ দাফনের ৭০ দিন পর উত্তোলন করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা থেকে আসা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি টিম বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার নতুন বাজার এলাকার পারিবারিক কবরস্থান থেকে লাশটি উত্তোলন করে।
আনিকা নওশিন সারা সান্তাহার নতুন বাজারের মৃত নজরুল ইসলামের মেয়ে ও মেরিন প্রকৌশলী শাকিল আদনানের স্ত্রী। তিনি দুই সন্তানের জননী। কবর থেকে লাশ উত্তোলনের সময় নিহতের স্বজনদের কান্নায় হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আনিকা নওশিন সারার সঙ্গে আদমদীঘির সান্দিড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মেরিন প্রকৌশলী শাকিল আদনানের ১০ বছর আগে বিয়ে হয়। তারা সম্পর্কে খালাতো ভাই-বোন। বিয়ের কিছুদিন পর তারা ঢাকার নিউ ইস্কাটন এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তাদের আরাফাত (৭) ও সাদাত (৪) নামে দুই ছেলে রয়েছে। স¤প্রতি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। গত ২৬ মে রাতে ঢাকার বাসায় আনিকা নওশিনকে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় স্বজনরা উদ্ধার করে ঢাকার স্থানীয় হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে আইনের আশ্রয় না নিয়েই সেখান থেকে তড়িঘড়ি করে লাশ আদমদীঘির সান্তাহার নতুন বাজার এলাকায় দাফন করা হয়।

আনিকা নওশিনের বড় বোন নাজমুন নাহার বাদী হয়ে গত ৩১ জুন ঢাকার হাতিরঝিল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শাকিল আদনানকে আসামি করে মামলা করেন। মামলাটি ঢাকায় সিআইডিতে স্থানান্তর করা হলে তদন্তকারী কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসাইন মামলাটি সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ও আনিকা নওশিনের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানার জন্য চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে লাশ উত্তোলনের আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত আনিকা নওশিনের লাশ কবর থেকে উত্তোলনের আদেশ দেন। এরপর গত মঙ্গলবার বগুড়ার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলামের উপস্থিতিতে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) উপ-পরিদর্শক দেলোয়ার হোসাইন জানান, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে এটি হত্যা না আত্মহত্যা সেটি জানা যাবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Shakhawat Babon ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১:৩৯ এএম says : 0
৭০ দিনপর কি আর কোন আলামত পাওয়া যাবে?
Total Reply(0)
অবহেলার পাত্র ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১:৪৩ এএম says : 0
এত ময়না তদন্ত করে কিন্তু এর বিচার তো হচ্ছে না,,,, তাহলে ময়না তদন্ত করার দরকার কি????? মৃত্যু কতটা কষ্টে হয় তারপর মরার পরও তার উপর কতটা অত্যাচার চালানো হয় কেনো কেনো???
Total Reply(0)
Mostafizur Rahman ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১:৪৪ এএম says : 0
লাশ তুলে কি হবে? এই রকম লাশতো সাগর রুমিরও তোলা হয়েছে?
Total Reply(0)
MD Delwar ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১:৪৪ এএম says : 0
মরে ও শান্তি নায়
Total Reply(0)
MD Delwar ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১:৪৪ এএম says : 0
মরে ও শান্তি নায়
Total Reply(0)
সপ্নের অথৈ সমুদ্র ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১:৪৪ এএম says : 0
এ জন্যই পুলিশ অসাভাবিক মৃত্যুগুলা ময়না তদন্ত ছাড়া দাফন করতে দিতে চায়না
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন