ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মিরপুর ও কাঁচপুরে শ্রমিক বিক্ষোভ সড়ক অবরোধ

বকেয়া বেতন-ভাতার দাবি

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম | আপডেট : ১২:০৭ এএম, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

বকেয়া পরিশোধসহ বিভিন্ন দাবিতে গতকাল গার্মেন্টস শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে রাজধানীর মিরপুরে এবং নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার কাঁচপুরে। বিশেষ সংবাদদাতা জানান, বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে মিরপুরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন পোশাক শ্রমিকরা। এতে গতকাল সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মিরপুর ১ নম্বর এলাকার সড়কগুলোতে যানবাহন চলাচল স্থবির হয়ে পড়ে। সকাল দশটার দিকে মিরপুর-১ গোলচত্বর এলাকায় জারা জিন্স অ্যান্ড নিটওয়্যার লিমিটেড কোম্পানির শত শত শ্রমিক সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এ সময় দীর্ঘ যানজটের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ চরমভোগান্তিতে পড়েন। সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েন স্কুলগামী শিশু ও তাদের অভিভাবকরা।
গার্মেন্ট শ্রমিকদের অভিযোগ, গত তিনমাস ধরে তারা বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না। এমনকি দফায় দফায় কারখানা কর্তৃৃপক্ষ সময় চাইলে কার্যকরী কোনো সমাধান দিচ্ছে না। তাই নিরুপায় হয়ে তারা রাস্তায় নেমেছেন। পরে বিজিএমইএ ও পুলিশের মধ্যস্থতায় বিকেল ৪টার দিকে রাস্তা ছেড়ে দিয়ে মালিকপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তারা।
মিরপুর জোনের ট্রাফিক পুলিশের এসি তাহসিনা আরিফ বলেন, শ্রমিকদের দাবি ন্যায্য। কিন্তু সড়কেও ভোগান্তি সৃষ্টি হয়েছে। তাদের অবরোধের কারণে মিরপুর-১ এর সনি সিনেমা হল, মুক্তিযোদ্ধা ক্রসিং, রাইনখোলাসহ মোটামুটি সব দিকের সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল বেশ কয়েক ঘন্টা। তারা ঈদের আগেও সড়কে বসেছিল বেতন-বোনাসের দাবিতে। তখন তো শুনেছি, তাদের আশ্বাস দেয়া হয়েছে। কিন্তু এখনও তাদের পাওনা বুঝিয়ে দেওয়া হয়নি। তাই ক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে বিজিএমইএ ও পুলিশের মধ্যস্থতায় বিকেল ৪টার দিকে রাস্তা ছেড়ে দেয় শ্রমিকরা। গতকাল আলোচনা চূড়ান্ত হয়নি। আলোচনা আরো চলছে বলে জানা গেছে।
কাচঁপুরে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ২০
সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, মাতৃত্বকালীন ছুটি, ছুটিকালে ভাতা প্রদান, মাসিক বেতন ৮ তারিখের মধ্যে পরিশোধ ও ভাতা বৃদ্ধিসহ ৪ দফা দাবিতে টানা দু’দিন ধরে উপজেলার কাঁচপুরের সিনহা গার্মেন্টের শ্রমিকরা ঢাকা-চট্টগগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছে। গতকাল রোববার সকালে শ্রমিকরা কাজে যোগ না দিয়ে গার্মেন্টেসের ফটকের সামনে মহাসড়কে অবস্থান নেয়।
সোনারগাঁ থানা পুলিশ, কাঁচপুর শিল্প পুলিশ ও কাঁচপুর হাইওয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের রাস্তা ছেড়ে দিতে অনুরোধ করলেও তারা পুলিশের সেই অনুরোধ রাখেনি।
পরে শ্রমিকের সাথে পুলিশের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে পুলিশ শ্রমিকদের ওপর পানিকামান ও টিয়ার শেল ছুড়ে মারলে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকদের সংঘর্ষ বেধে যায়। শ্রমিকরাও এসময় পুলিশের উপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে গোটা কাঁচপুর এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এতে পুলিশসহ ২০ জন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশের অভিযানে শ্রমিকরা রাস্তা থেকে সরে গেলেও অবরোধের কারণে দুটি মহাসড়কের তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়ে যাত্রীরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন