ঢাকা, মঙ্গলবার , ২১ জানুয়ারী ২০২০, ০৭ মাঘ ১৪২৬, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি কোর্সের বৈধতা চ্যালেঞ্জ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:২০ এএম

হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের দু’টি কোর্স কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না-এই মর্মে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। কোর্সগুলো হলো, ব্যাচেলর অব ইউনানি মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি (বিইউএমএস) এবং ব্যাচেলর অব আয়ুর্বেদিক মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি (বিএএমএস)।
এক রিট পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম এবং বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের ডিভিশন বেঞ্চ রুল জারি করেন। আগামি ২ সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় সচিব, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যানসহ ১১ জনকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। রিটাকারীদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন।
রিটে বলা হয়, বেসরকারি পর্যায়ে কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিইউএমএস এবং বিএএমএস কোর্স দুটিতে ভর্তি ও শিক্ষা কার্যক্রম চালু করতে হলে বাংলাদেশে বেসরকারি পর্যায়ে ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল (¯œাতক মান) স্থাপন ও পরিচালনা-সংক্রান্ত নীতিমালা-২০১২ এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০১০-এর ৩৫(১) ধারায় অনুমোদন নিতে হয়। কিন্তু বেসরকারি হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন না নিয়েই বিইউএমএস এবং বিএএমএস কোর্স দুটি চালু করে। বিদ্যমান নিয়মের বাইরে ভিন্নভাবে পরিচালিত হচ্ছে, যা অবৈধ। এ প্রেক্ষাপটে হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের এই কোর্স পরিচালনার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ডা.মো. আলমগীর হোসেনসহ ৩৪ জন বাদী হয়ে রিট করেন। ওই রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে উপরোক্ত রুল জারি করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
মো: ইসহাক ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৮:৫৫ এএম says : 0
আমি এস এস সি পাস করে সরাসরি হোমিওপ্যথিওত পড়াশুনা করেছি চার বছর এইচ এস সি পড়ি নাই একন আমি ব্যাচলোর অব আযূবেদিক মেডিসিন বা ব্যাচলোর অব হোমিওপ্যাথিক মেডিসিনে পড়াশুনা করতে চাই । এখন কি করবো।
Total Reply(0)
মো: ইসহাক ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:০২ এএম says : 0
আমার বাড়ি দিনাজপুর জেলায় । এখানে বিগত কয়েক বছরে প্রচুর হিংস্র কুকুরের উৎপাত কয়েকশত গুন বেড়েছে । মানুষ সহ পোষা প্রানী যেমন গরু ,ছাগল , হাস বিশেষ করে মুরগী এই সব কে দলবেধে এই হিংস্র কুকুর গুলো শিকাররের মতো খেয়ে ফেলছে । এই বিষয়ে পৌরসভায় কমপিলিন করে কোন লাভ হচ্ছে না। বলতেছে সরকার বন্ধ রাখছে । সকলের জন্য ঐ সব হিংস্র কুকুর ভয়ংকর বিপদের কারণ হয়ে উঠেছে ।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন