ঢাকা শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ মুহাররম ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সূত্রাপুরে যুবলীগ নেতাকে গুলি এবং শ্যামপুরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর সূত্রাপুর থানা এলাকায় ঢাকা মহানগর যুবলীগের এক নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতের নাম রাজীব হাসান (৩৮)। তিনি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের উপ-অর্থ সম্পাদক বলে জানা গেছে। অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক কোন্দলের জের ধরে প্রতিপক্ষরা তাকে গুলি করে হত্যা করেছে বলে দাবি করেছে তার পরিবার। অপরদিকে শ্যামপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে  শাহেদ (২৮) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পাপ্পু নামে এক জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ময়না তদন্তের জন্য লাশ দু’টি ঢাকা মেডিকেল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ ও মেডিকেল সূত্র জানায়, গত শুক্রবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে সূত্রাপুর থানাধীন ধোলাইখালের রোকনপুরে নিজ বাড়ির পাশে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা রাজীব হাসানকে গুলি করে। গুলিবিদ্ধ রাজীব সেখানেই পড়ে থাকেন। বেশ কিছুক্ষণ পরে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। নিহত রাজীব হাসান ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের উপ-অর্থ সম্পাদক বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে গুলিবিদ্ধ রাজীব হাসানকে সেখানে নেয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসা কর্মকর্তা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সূত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তপন কুমার বলেন, রাজীবের মাথায় তিনটি গুলির ক্ষত চিহ্ন দেখা গেছে। ঘটনাস্থল থেকেও একটি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন, কারা কেন তাকে হত্যা করেছে, তা এখনো জানা যায়নি। এদিকে  নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন রাজীব। সম্প্রতি মহানগর যুবলীগে বড় পদ পাওয়ায় নিজের দলের একটি গ্রুপ রাজীবকে সহ্য করতে পারছিলেন না। ওই চক্রটিই তাকে গুলি করে হত্যা করেছে। গতকাল শনিবার ঢাকা মেডিকেল মর্গে নিহতের লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এ সময় পর্যন্ত থানায় মামলাও হয়নি।
 অপরদিকে শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে শ্যামপুরের ঢালকানগরে মো. শাহেদ (২৮) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মো. পাপ্পু (২৭) নামের স্থানীয় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শ্যামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, রাতে বাসা থেকে বের হয়েছিলেন শাহেদ। তার বাসার সামনে প্রতিবেশী এক যুবক শাহেদের কাছে এত রাতে বের হওয়ার কারণ জানতে চান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাহেদ ওই যুবককে চড় মারেন। কিছুক্ষণ পর আরেক ওই যুবক প্রতিবেশী পাপ্পুসহ কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে এসে শাহেদকে মারধর করেন। এ সময় ছুরিকাঘাতে আহত হন শাহেদ। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ওসি বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন