ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী

লাইফস্টাইল

কিভাবে জীবাণুমুক্ত করবেন

ইকোনমিক টাইমস | প্রকাশের সময় : ১১ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৫০ পিএম

বিশ্বের প্রায় সব দেশেই ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। মানুষ বা বস্তুর সংস্পর্শে থেকে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে করোনা। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কেনা থেকে শুরু করে বাড়ির বাইরে পা ফেললেই আতঙ্কে দিন পার করছে মানুষ।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কেনাকাটা করার আগে অবশ্যই মুখে মাস্ক ও দুই হাতে গ্লাভস ব্যবহার করতে হবে। সে সঙ্গে একজনের সাথে অপরজনের দূরত্ব ২ মিটার বজায় রাখতে হবে। তাছাড়া কিছুক্ষণ পরপর হাত পরিষ্কার করতে হবে।
অনেকেই আছেন যারা বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর নিয়মিত ভাবে নিজেদের ফোন পরিষ্কার করেন। কিন্তু বাইরে থেকে যা কিনে নিয়ে আসা হলো সেগুলো পরিষ্কারের ব্যাপারে মানুষ কতটুকু সচেতন?
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খাবারের মাধ্যমে করোনার জীবাণু সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা খুবই কম। বরং মানুষ বাইরে থেকে বাড়িতে বেশি জীবাণু নিয়ে আসে অন্যের সংস্পর্শ থেকে। যুক্তরাজ্যের খাদ্য নিরাপত্তা বিভাগের ওয়েবসাইট বলছে, খাবারের মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ অসম্ভব প্রায়। এ বিষয়ে একমত প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও। ইউনিভার্সিটি অফ ক্যাম্ব্রিজের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক স্টিফেন বেকার জানান, খাবারের উপর ভাইরাস খুব কম সময়ই বেঁচে থাকতে পারে। অন্যান্য বস্তুর তুলনায় খাবারে ভাইরাসের জীবনকাল খুবই কম।
দূষিত খাবার খাওয়ার মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কতটুকু? এমন প্রশ্নের জবাবে স্টিফেন বেকার বলছেন, খাবারের মাধ্যমে জীবাণু সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা খুবই কম। ফুড স্ট্যান্ডার্ডস এজেন্সি বলছে, সঠিক তাপমাত্রায় খাবার রান্না করা হলে জীবাণু সহজেই মারা যাবে।
আপানি এখনো চিন্তিত। নিজেকে কিভাবে রক্ষা করতে পারবেন? আসুন জেনে নেয়া যাক কি করা যায়। প্রথমত অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ওয়াইপ (ভেজা টিস্যু) ব্যবহার করা যেতে পারে। খাবার তৈরি করার আগে বা বানানোর আগে হাত ভালোভাবে ধুতে হবে। যেকোন জিনিস ব্যবহারের আগে অবশ্যই পানি দিয়ে পরিষ্কর করতে হবে।
শপিং ব্যাগ যদি একাধিকবার ব্যবহার করেন তবে ব্যাগটি দ্বিতীয়বার ব্যবহারের আগে অবশ্যই পরিষ্কার করতে হবে। বাজার থেকে বাড়ি আসার পর হাত ধুতে হবে এবং প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করে বাড়ির বাইরে যেতে হবে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
কে এম শাকীর ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১১ এএম says : 0
আপনি যদি একজন সুস্থ মানুষ হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার মাস্কের প্রয়োজন তখনই হবে যদি আপনি একজন সম্ভাব্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির দেখভাল করার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকেন।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ মোশাররফ ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১২ এএম says : 0
Replace the mask with a new one as soon as it is damp and do not re-use single-use masks.
Total Reply(0)
Anwar Hossain ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১২ এএম says : 0
ইদানিং বাংলাদেশে মাস্ক পড়তে হয় করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার জন্য । তার চেয়ে ও জরুরী হচ্ছে ধূলাবালি , ময়লা, আবর্জনা এবং রোগ জীবাণু থেকে রক্ষা পেতে মাস্ক ব্যবহার করতে হয় ।
Total Reply(0)
Sadat Sayeem ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১২ এএম says : 0
Stay safe in your home don’t be go out before the cure is not prevent.
Total Reply(0)
Abdur Rab ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১৩ এএম says : 0
home quarantine, isolation and lock down are very essential now. But the authority is totally indifference to protect coronavirus.
Total Reply(0)
Suchana Akter ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১৩ এএম says : 0
বিশ্বের সকল মুসলমান ভাই বোনদের কে আল্লাহপাকের মহামারী রোগ থেকে রক্ষা করুন আমিন
Total Reply(0)
Puspo Islam ১২ এপ্রিল, ২০২০, ১:১৩ এএম says : 0
অভিভাবকহীন দেশের জন্য জনগণ আজ দিশেহারা,ঠিকমত টেস্ট বা চিকিৎসা সম্ভব হচ্ছে না, সব কিছু এলোমেলো হয়ে গেছে।
Total Reply(0)
Miron ১২ এপ্রিল, ২০২০, ৯:০১ এএম says : 0
টাটকা শাক সব্জি খাইতে পারিনাই অনেকদিন যাবৎ, এবং দাম অনেক বেশি, দাম আমাদের নাগালের বাইরে.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন