ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আমার হৃদয় ভেঙে দিয়েছে

বিবৃতিতে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বিক্ষোভে উত্তাল মিনেপোলিস, কারফিউ জারি, অভিযুক্ত কর্মকর্তাকে ডিভোর্স স্ত্রীর, সেনা মোতায়েন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০২০, ১২:১২ এএম

অবশেষে গ্রেফতার করা হয়েছে মিনিয়াপোলিস কান্ডের মূল হোতা অভিযুক্ত পুলিশকর্মীকে। কয়েক দিন আগে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গর গলায় হাঁটু চেপে শ্বাসরোধে হত্যা করার অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। অবশেষে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় পুলিশকর্মী ডেরেক চাওভিনকে। গত সোমবার ফ্লয়েডকে হত্যার পর চার অভিযুক্ত পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়। ফ্লয়েডকে হত্যার যে ভিডিও সামনে এসেছে তাতে দেখা যায়, কৃষ্ণাঙ্গ বারবার মার্কিন পুলিশ অফিসারকে বলছেম আমার দম বন্ধ হয়ে আসছে, কিন্তু পুলিশকর্তা তাতে কর্ণপাত করেননি। শেষমেষ প্রাণ হারান ফ্লয়েড। এরপর থেকেই মিনিয়াপোলিস জুড়ে শুরু হয় প্রতিবাদ। এদিকে মার্কিন শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড নির্মমভাবে খুন হওয়ার ঘটনায় সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা শুক্রবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘পুলিশের হাতে জর্জ ফ্লয়েডের নির্মম হত্যাকান্ড ২০২০ সালের আমেরিকায় ‘স্বাভাবিক’ বিষয় হতে পারে না। আমি ভিডিও দেখেছি। ওই দৃশ্য আমার হৃদয় ভেঙে দিয়েছে। আমাদের মনে রাখতে হবে, এখনো লাখ লাখ মানুষকে বর্ণের কারণে নিগৃহীত হতে হয়। আমেরিকাকে অবশ্যই ভালো হতে হবে’।

এ নিয়ে গোটা আমেরিকায় যখন ব্যাপক বিক্ষোভ চলছে তখন ওবামা বলেছেন, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে মহামারির মধ্যে মানুষজন স্বাভাবিক পরিস্থিতির জন্য উদগ্রীব হয়ে আছে। বিভিন্নভাবে মর্মান্তিক, কষ্টকর এবং মানসিক যন্ত্রণা পোহানোর জেরে মার্কিনিরা উৎসুক হয়ে আছে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার। তখন এই মর্মান্তিক হত্যাকান্ড ঘটল। এদিকে, কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক নিহত হওয়ার ঘটনায় বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে পড়েছে মিনেপোলিস শহর। পরিস্থিতি সামাল দিতে মেয়র জ্যাকব ফ্রেই শহরে কারফিউ জারি করেছেন। অন্য শহরেও বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।

আফ্রিকান-আমেরিকানদের ওপর পুলিশি বর্বরতার বিরুদ্ধে অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র। শত শত দোকান ও পুলিশ স্টেশন ভাংচুরের পর মিনিয়াপোলিস ও সেন্ট পলে রাস্তায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। নিউইয়র্ক থেকে ফিনিক্স পর্যন্ত দেশটির বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। এতে স্থানীয় কর্মকর্তাদের সমালোচনা করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিক্ষোভকারীদের ‘খুনি গুন্ডা’ আখ্যায়িত করে কঠোরভাবে দমনের হুমকি দিয়েছেন তিনি।

ওদিকে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপলিসে জর্জ ফ্লয়েড নামের কৃষ্ণাঙ্গ এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত পুলিশের সাবেক কর্মকর্তা দারেক চাউভিনের সঙ্গে ১০ বছরের বিবাহিত জীবনের ইতি টানার কথা জানিয়েছেন তার স্ত্রী ক্যালি চাউভিন। একটি বিবৃতিতে ক্যালি চাউভিনের আইনজীবী জানান, কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় অভিযুক্ত হওয়ার কারণে দারেক চাউভিনের স্ত্রী তাকে ডিভোর্স দিচ্ছেন। এছাড়া ক্যালি চাউভিনের নিহত জর্জ ফ্লয়েডের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন বলেও জানান তার আইনজীবী। সূত্র : ডন, বিবিস, সিএনএন, রয়টার্স, আল-জাজিরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
M Motiur Rahman ৩১ মে, ২০২০, ১২:৫৫ এএম says : 0
ম্যান্ডেলা ওবামারা বর্ণবাদের বিরুদ্ধে আন্দোলনের মাধ্যমে কড়া জবাব দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র সহ বিশ্ববাসীকে কিন্ত পরিবর্তন আসেনি।বর্ণবাদ এখনো মানুষের জীবন নিয়ে নেয় এটা আসলেই দুঃখের বিষয়।
Total Reply(0)
Md Jabed ৩১ মে, ২০২০, ১২:৫৫ এএম says : 0
বাংলাদেশ তুমি শিক্ষা নাও কি ভাবে আন্দোলন করতে হয়
Total Reply(0)
Irin Kareem ৩১ মে, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
করোনায় এতো মানুষ মরার পরও ওদের হুশ হয়নি এখনো চামড়ার বড়াই
Total Reply(0)
SI Tosar ৩১ মে, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
রাতের বেলায় বিক্ষোভ আমাদের দেশ হলে ত টুসটাস সকাল হলেই ক্লিন আর ফকফকা। আর ব্রিফিং হইতো সবাই বিক্ষোভ শেষ করে শান্তিপূর্ণ ভাবে বাড়িতে ফিরে গেছে
Total Reply(0)
Nill Sopno ৩১ মে, ২০২০, ১:০০ এএম says : 0
বাংলাদেশে হলে এতক্ষণে পুলিশের হাতে আরো কতগুলো প্রাণ যেতে তা হিসেবের বাইরে! হ্যাঁ অ্যামোরিকাতে ফিডম রাইটস আছে বিদায়" তারা বিক্ষোভ ও হামলা ভাংচুর চালাতে পেরেছে!
Total Reply(0)
Mahmud Hasan ৩১ মে, ২০২০, ১:০০ এএম says : 0
কিন্তু দুৰ্ভাগ্যজনক হলে ও এটাই সত্যি যে এই বর্ণবাদেরা আমাদের কে সভ্যতা শেখাচ্ছে
Total Reply(0)
Rony Khan ৩১ মে, ২০২০, ১:০০ এএম says : 0
যুদ্ধ করে যত সহজে দেশকে ধংস করা না যায়। তার চেয়ে বেশি সহজে ধংস করা যায় প্রতিহিংসা দিয়ে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন