ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পরস্পরের বিরুদ্ধে উস্কানি দেয়ার অভিযোগ ভারত ও চীনের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫:৫৩ পিএম

হিমালয় সীমান্তে সামরিক উস্কানি দেয়ার জন্য সোমবার একে অপরকে বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও চীন। গত জুনে সেখানে দুই দেশের মধ্যে একটি মারাত্মক সংঘর্ষের পরে সৃষ্ট উত্তেজনা এখনো হ্রাস পায়নি। এমনকি উভয় পক্ষের কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠকের পরেও এখনো সমস্যার সমাধান হয়নি।

চীনের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, সোমবার ভারতীয় সেনারা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪ হাজার ২০০ মিটার উপরে প্যাংগ সো এলাকায় নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করেছিল এবং ‘উন্মুক্ত উস্কানিতে লিপ্ত হয়ে সীমান্ত পরিস্থিতিতে উত্তেজনা সৃষ্টি করেছিল।’ চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির আঞ্চলিক কমান্ড এক বিবৃতিতে ‘চীনের আঞ্চলিক সার্বভৌমত্বকে গুরুতরভাবে লঙ্ঘন করছে’ বলে ভারতকে অভিযুক্ত করে বলেছে, ‘চীনা সামরিক বাহিনী প্রয়োজনীয় পাল্টা ব্যবস্থা নিচ্ছে।’ এর আগে সোমবার, ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে যে, চীনা সেনারা সপ্তাহান্তে পূর্বের লাদাখ অঞ্চলে ‘স্থিতাবস্থা পরিবর্তনের জন্য উস্কানিমূলকভাবে সেনা সমাবেশ করছে।’

পারমাণবিক শক্তি সম্পন্ন দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে উত্তেজনা লাঘব করার জন্য সোমবার দু’পক্ষের সামরিক কমান্ডাররা বৈঠক করেছেন। এর আগে ১৯৬২ সালে সীমান্ত নিয়ে দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ হয়েছে এবং এর পর থেকে সেখানে নিয়মিতভাবে দুই দেশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

চীন ভারতের অভিযোগ অস্বীকার করেছে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে যে, তাদের সেনাবাহিনী সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখাকে ‘সর্বদা কঠোরভাবে সম্মান করে এসেছে’। এর আগে, চলতি বছরের ১৫ জুন, দু’পক্ষের সৈন্যরা লাদাখে একে অপরের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে, যেখানে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছিল। চীন হতাহতের কথা স্বীকার করলেও পরিসংখ্যান দেয়নি।

সাম্প্রতিক সংঘর্ষের জন্য উভয় পক্ষ একে অপরকে দোষ দেয় এবং উভয় সেনাবাহিনী তখন থেকেই ওই অঞ্চলে কয়েক হাজার সেনা পাঠিয়েছে। দুই দেশের মধ্যে সামরিক এবং কূটনৈতিক আলোচনা এখনো স্পষ্টভাবেই অচলাবস্থায় রয়েছে। সূত্র: ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
a aman ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৪৯ পিএম says : 0
india kills over 200 cowboys in bangladesh border per year
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন