ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত

প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : যথাযথ মর্যাদায় রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে পালিত হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছার ৮৬তম জন্মবার্ষিকী। এ উপলক্ষে গতকাল সোমবার সকালে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত বেগম ফজিলাতুন্নেছার সমাধিতে আওয়ামী ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে কোরআনখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এছাড়া জেলা-উপজেলায় এ উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। ১৯৩০ সালের ৮ আগস্ট গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। মাত্র তিন বছর বয়সে বাবা শেখ জহুরুল হক ও পাঁচ বছর বয়সে মা হোসনে আরা বেগমকে হারান তিনি। শেখ লুৎফর রহমানের ছেলে চাচাতো ভাই শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে বেগম ফজিলাতুন্নেছার বিয়ে হয়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তাকেও ঘাতক-খুনিচক্র হত্যা করে।  
শেখ ফজিলাতুন্নেছার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দেন। তারা মরহুমার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।
এদিকে গতকাল বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় উপস্থিত ছিলেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আব্দুল মতিন খসরু, আফজাল হোসেন, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, ফরিদুন্নাহার লাইলী, আবদুস সোবহান গোলাপ, অসীম কুমার উকিল, এনামুল হক শামীম ও এসএম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দি, যুবলীগের ওমর ফারুক চৌধুরী, হারুনুর রশিদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের শাহে আলম মুরাদ, মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাদেক খান, ছাত্রলীগের সাইফুর রহমান সোহাগ, এসএম জাকির হোসাইন, যুব মহিলা লীগের নাজমা আক্তার, অপু উকিল, ছাত্রলীগ মহানগর উত্তরের সৈয়দ মিজানুর রহমান প্রমুখ।
আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের পরে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণ, আওয়ামী যুবলীগ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, আওয়ামী স্বেছাসেবকলীগ, যুব মহিলা লীগ, কৃষক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ, বঙ্গমাতা পরিষদ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিকসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা বঙ্গমাতার সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।  
সকালে রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছার ৮৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় আলোচনা সভার আয়োজন করে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দেন। মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিশু একাডেমির  চেয়ারম্যান সেলিনা হোসেন, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি রেবেকা মোমেন এবং জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম বক্তৃতা করেন।
এছাড়া বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে টিএসসিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইনের পরিচালনায় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতারা বক্তৃতা করেন।
বিকালে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের যৌথ আয়োজনে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। বাদ আসর মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলা লীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
অপরদিকে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ‘শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় স্মরণীয় : বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব’ স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় গণভবনে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় ও নগর নেতাদের উপস্থিতিতে গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন করেন তিনি। যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর সম্পাদনায় ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তর বইটি প্রকাশ করেছে।
বাদ আছর বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এছাড়া বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে পথশিশুদের মধ্যে বস্ত্র ও খাদ্য বিতরণ করে যুব মহিলা লীগ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন