বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ফেরি চলাচল আবারো বন্ধ

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট ট্রাক শ্রমিক-ফেরি স্টাফদের সংঘর্ষে ৪ জন আহত

মুন্সীগঞ্জ ও মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল আবারো বন্ধ হয়ে গেছে। পদ্মা সেতুর নীচে লৌহজং চ্যানেলে বিআইডব্লিউটিএ এবং চীনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ড্রেজিং এর কাজ করায় গতকাল সকাল থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটটিতে নাব্যতা সঙ্কটের কবলে পড়ে বার বার ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। গত শুক্রবার বিকালে পরীক্ষামূলকভাবে ৩টি ফেরি শিমুলিয়া ঘাট ছেড়ে যায়। পরদিন ৩টি কে টাইপ এবং ২টি মিডিয়াম টাইপের ফেরি চলাচল করে। গতকাল সকাল ৬টায় শিমুলিয়া ঘাট থেকে ১টি ফেরি ছেড়ে যায়। পরবর্তীতে লৌহজং চ্যানেলে পদ্মা সেতুর ২৫ ও ২৬ নম্বর পিলারের নীচে বিআইডব্লিউটিএ এবং চীনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ড্রেজিংয়ের কাজ করায় সকল ধরণের ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।

গত শুক্রবার রাতে ৩ নম্বর রো রো ফেরিঘাট এলাকায় ভাঙন দেখা দেয়ায় ঘাটটি বন্ধ করে দেয়া হয়। সম্প্রতি ভয়াবহ ভাঙনে ৪ নম্বর ভিঅইপি ফেরিঘাটটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। এদিকে কোন পূর্ব ঘোষণা ছাড়া ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বাস যাত্রীদের ঘাটে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

এদিকে, মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ট্রাক শ্রমিক ও ফেরির স্টাফদের মধ্যে গতকাল দুপুরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪ জন আহত হয়েছে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় প্রায় তিন শতাধিকের বেশি ট্রাক ও অন্যান্য যানবাহন।

বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ি ঘাট সূত্রে জানা গেছে, নাব্যতা সঙ্কটের কারণে টানা ৯ দিন বন্ধ থাকার পর গত শনিবার থেকে শুধুমাত্র কে টাইপ ও মাঝারি ফেরি চলাচল শুরু করে। গতকাল দুপুরে কে টাইপ ফেরি কিশোরী শিমুলিয়া ঘাট থেকে ৩টি ট্রাকসহ যানবাহন বোঝাই করে কাঁঠালবাড়ি ৩ নম্বর ঘাটে আসে। ফেরিটি আনলোড হওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরে ঘাটে আটকে থাকা ট্রাক শ্রমিকরা ৩টি ট্রাক পার করার দাবি জানায়। কিন্তু ফেরিটির সুকানি জাকির হোসেন মাত্র ১টি ট্রাক নিতে চায়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষ একে অপরের ওপর লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায় ও ইটপাটকেল ছুড়ে। এতে উভয়পক্ষের ৪ জন আহত হয়। খবর পেয়ে ঘাটে কর্তব্যরত পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে উভয়পক্ষকে নিয়ে সমঝোতা বৈঠক করে পুলিশ। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ঘাটে কর্তব্যরত পুলিশ পরিদর্শক মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, শিমুলিয়া ঘাট থেকে ৩টি ট্রাক নিয়ে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে আসে একটি ফেরি। কাঁঠালবাড়ি ঘাটে থাকা ট্রাক শ্রমিকরা ৩টি ট্রাক পার করার দাবি করে। ফেরিতে ট্রাক বেশি ওঠানো নিয়ে সংঘর্ষ বাধে। ফেরি স্টাফদের দাবি নদীতে নাব্যতা সঙ্কট থাকায় বেশি ট্রাক বহন করা যাচ্ছে না। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ি ঘাট ম্যানেজার আব্দুল আালিম জানান, ওই ফেরিটা যাওয়ার পর আর কোন ফেরি ছেড়ে যায়নি আর শিমুলিয়া ঘাট থেকেও ফেরি ছেড়ে আসেনি। এখন পর্যন্ত সকল ফেরি বন্ধ আছে। ডুবোচরের পরিস্থিতি ভাল হলে ফেরি চালু করা হতে পারে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন