ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ডাকের ডিজি ভদ্রকে সরাতে একমত সংসদীয় কমিটি

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:৫৭ পিএম | আপডেট : ৭:৪৭ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক (চলতি দায়িত্ব) সুধাংশু শেখর ভদ্র (এসএস ভদ্র)কে সরিয়ে দিতে একমত পোষণ করেছেন সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। গতকাল বুুধবার কমিটির সপ্তম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বারও উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে উপস্থিত সংসদীয় কমিটির একজন সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে ইনকিলাবকে জানান, গ্রামীণ জনগোষ্ঠিকে ডিজিটাল সেবা দেয়ার নামে প্রকল্পের আওতায় শত শত কোটি টাকা লোপাট, অপ্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ক্রয়, ক্রয়কৃত যন্ত্রপাতি অকেজো অবস্থায় ফেলে রেখে র রয়েছে এসএস ভদ্র’র বিরুদ্ধে। মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব তদন্তে প্রমাণিত এসব দুর্নীতির অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)ও তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালাচ্ছে। এরই মধ্যে করোনা পজেটিভ নিয়ে ১৪ আগস্ট স্মারক ডাক টিকিট উদ্বোধনের নামে প্রধানমন্ত্রীর সামনে হাজির হন তিনি। অবিশ^াস্য দুর্নীতি এবং মহামারী প্রতিরোধ আইন ভঙ্গের কারণে তার বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা। কমিটির সভায় সুধাংশু শেখর ভদ্রও উপস্থিত ছিলেন। তাকে সামনে রেখেই ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। এ সময় ডাকের ডিজিকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হলেও তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেন নি। নিরবে শুনেছেন কমিটির কথা। তার অপসারণ প্রশ্নে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বারও একমত পোষণ করেন বলে সভা সূত্র জানায়।
এদিকে ডিজিটাল সেবা দেয়ার নাম করে শত শত কোটি লোপাট করেছে ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখর ভদ্র। বহু অস্তিত্ববিহীন ডিজিটাল সেন্টারের বিপরীতে তিনি যন্ত্রপাতি সরবরাহ দেখান। বিপরীতে হাতিয়ে নেন ৫শ’ ৪০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। এসব বিষয়ে চলতিবছর ফেব্রুয়ারিতে দৈনিক ইনকিলাব একাধিক অনুসন্ধান প্রতিবেদন প্রকাশ খরে। এ প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ডাক, টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। দুটি তদন্তেই অভিযোগের সত্যতা মেলে। ইনকিলাব প্রতিবেদনের ভিত্তিতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) অনুসন্ধানে নামে। অনুসন্ধান প্রক্রিয়ায় সুধাংশু শেখর ভদ্র এবং প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। যেকোনো সময় এ বিষয়ে দুদক দায়ের করতে পারে মামলা।
এদিকে গত ১৪ আগস্ট সকালে জাতির জনকের ৪৫তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ স্মারক ডাকটিকিট, ডাটা কার্ড উন্মোচন ও বিশেষ খামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে অন্যান্যের সঙ্গে তিনিও গণভবনে যান। অথচ সে সময় তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে টেবিলে বসে উদ্বোধনী খাম, স্মারক ডাকটিকিট এবং ডাটা কার্ড উন্মোচন কাজে স্বাক্ষর করেছেন সেই টেবিলের পাশেই দাঁড়ানো ছিলেন সুধাংশু শেখর ভদ্র। এ বিষয়েও দৈনিক ইনকিলাব প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে এক সদস্য এ প্রতিবেদককে জানান, বৈঠকে সবাই ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখর ভদ্রকে সরিয়ে দেয়ার জন্য বলেছেন। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া করোনা রোগী হয়েও তিনি তা গোপন করে গণভবনে গেছেন। তার দুর্নীতি নিয়েও অনুসন্ধান চালাচ্ছে দুদক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
KAZI M HOSSAIN ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১:৫৬ এএম says : 0
send him for retirement, how join with the meeting with PM SK.Hasina, while he was carrying Corona virus
Total Reply(0)
Mohammed Shah Alam Khan ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:৪৩ এএম says : 0
ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক (চলতি দায়িত্ব) সুধাংশু শেখর ভদ্র (এসএস ভদ্র)কে সরিয়ে দিতে একমত পোষণ করেছেন সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। ইতিমধ্যে ভদ্র বাবু বিভিন্ন প্রকল্প ও যন্ত্রপাতি কেনার নামে হাতিয়ে নেন ৫শ’ ৪০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। বাংলাদেশের সরকারের তহবিল থেকে ভদ্র বাবু ছাড়া আর কোন কর্মকর্তা এতটাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এমন খবর পাওয়া যায়নি। ভদ্র বাবু নিলেন সরকারি টাকা আর প্রদীপ বাবু নিলেন জনগণের টাকা দুজনেই বাবু আর দুজনেই হাজার হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। আবার কয়দিন পূর্বেই খবরে পড়েছি আরোএক বাবু ব্যাবসার নামে হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যাংক থেকে মেরে দিয়েছে। এখন বাবুরাই বাংলাদেশের মালিক এটা ক্রমান্বয়ে পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হচ্ছে। এখন জনগণের উচিৎ বাবুদের থেকে সাবধান থাকা এরাই একদিন বাংলাদেশের বারটা বাজাবে, এখনও সময় আছে সাবধান হবার।
Total Reply(0)
এক পথিক ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:০২ এএম says : 0
এমন ভদ্রের কোনো অভাব নেই বাংলাদেশে। সরকারি বড় বড় পদগুলো বাগাও আর যা পারো লুটে-পুটে খাও। তারপর অবসরে চলে যাও। আহঃ কি মজা - তাই না?
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন