মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

চট্টগ্রাম ওয়াসার এমডি’র দুর্নীতি অনুসন্ধানে হাইকোর্টের রুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০৫ এএম

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক একেএম ফজলুল্লাহর দুর্নীতি অনুসন্ধান পূর্বক কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না-এই মর্মে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এক রিট পিটিশনের শুনানি শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম.ইনায়েতুর রহিম এবং বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের ভার্চুয়াল ডিভিশন বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। রিটের নথি থেকে জানাযায়, চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহর বিরুদ্ধে দুর্নীতি,অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ দীর্ঘ দিনের। তার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ তুলে ধরে চট্টগ্রামের বাসিন্দা হাসান আলী দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) গতবছর ১১ সেপ্টেম্বর অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগের বিষয়বস্তু দুদকে তফসিলভুক্ত অপরাধ। এ কারণে শুধুমাত্র দুদকই এসব বিষয়ে অনুসন্ধান-তদন্ত করার এখতিয়ার রাখে। কিন্তু অভিযোগ দাখিলের পরও দুদক ফজলুল্লাহর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাই গ্রহণ করে নি। এ প্রেক্ষাপটে সংক্ষুব্ধ হাসান আলী ২০ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টে রিট করেন। রিটের শুনানি শেষে উপরোক্ত রুল জারি করেন। রুলে দাখিলকৃত অভিযোগের বিষয়ে কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে কিংবা আদৌ কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে কিনা তা জানতে চাওয়া হয়েছে দুদকের কাছে। চার সপ্তাহের মধ্যে দুদককে রুলের জবাব দিতে হবে। রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো.ইকরাম উদ্দিন খান চৌধুরী। দুদকের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন মো.নওশের আলী মোল্লা। সরকারপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন মো.সারওয়ার হোসেন। রুলের বিষয়ে ইকরামউদ্দিন খান চৌধুরী বলেন, আদালত দাখিলকৃত অভিযোগের বিষয়ে কি পদক্ষেপ নিয়েছে জানতে চেয়েছেন।


শুনানি মুলতবি রাখা হয়েছিলো এক মাসের মতো। গতকালের শুনানিতে দুদকের আইনজীবী মো.নওশের আলী মোল্লা জানান, আদালতের মৌখিক আদেশ অবহিত করে ইতিমধ্যে দুদক কার্যালয়ে চিঠি লেখা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন