ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে যাত্রী দুর্ভোগ চার ফেরিঘাটের তিনটি বন্ধ ঘোষণা

প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

আরিচা গোয়ালন্দ সংবাদদাতা : পদ্মায় তীব্র ¯্রােত ও ভাঙনের কারণে দৌলতদিয়ায় চারটি ফেরিঘাটের মধ্যে তিনটি ঘাট সোমবার সকাল সাড়ে ৭টা থেকে বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। মাত্র একটি ঘাট দিয়ে জরুরি ভিত্তিতে কিছু যানবাহন পারাপার হয়। এতে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি সার্ভিস বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়ে পড়েছে। ফলে উভয় পাড়ে ৬ শতাধিক যানবাহন আটকা পড়েছে। যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এমতাবস্থা অব্যাহত থাকলে ঈদের পূর্বে ঘাট এলাকায় ব্যাপক যানজটের আশঙ্কা করছেন এ পথে চলাচলকারী যাত্রীরা।
বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া প্রান্তের ব্যবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘তীব্র ¯্রােত ও নদী ভাঙনের কারণে সোমবার দুপুর পর্যন্ত ১, ২ ও ৪ নম্বও ফেরিঘাট বন্ধ ছিল। শুধু ৩ নম্বর ঘাট দিয়ে জরুরি ভিত্তিতে কিছু যানবাহন পারাপার করা হয়। দীর্ঘ প্রায় দেড় মাস পরে সোমবার বেলা ২টায় ১ নং ঘাটটি চালু করা হয়। বিকেলে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ২ ও ৪ নং ঘাট বন্ধ রয়েছে। এতে ফেরিতে যানবাহন লোড-আনলোড মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। দুই পারে পণ্যবাহী ট্রাকসহ প্রায় ৬ শতাধিক যানবাহন ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।
বিআইডব্লিউটিএ’র নির্বাহী প্রকৌশলী নিজাম উদ্দিন বলেন, নদী ভাঙনের কারণে বার-বার ঘাট স্থানান্তর করতে হচ্ছে। ১ ও ৩ নং ঘাট সচল রয়েছে। ৪ নং ঘাটের পন্টুনের র‌্যাম নষ্ট হওয়ায় উক্ত ঘাটটি বন্ধ রয়েছে। তবে ঈদের আগে আমরা সবগুলো ঘাটই সচল করার চেষ্টা করছি। ঘাট মেরামত কাজ অব্যাহত রয়েছে। সব কটি ঘাট সচল হলে এ সমস্যা থাকবে না বলে তিনি জানান।
উল্লেখ্য, জুলাইয়ের শেষেরদিকে দৌলতদিয়ায় ভাঙা ঘাটগুলো জোড়াতালি দিয়ে কোনো রকমে মেরামত করা হয়। এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই আগস্টের ৬ তারিখে সবগুলো ঘাট বন্ধ হয়ে যায়। পরে বিআইডব্লিউটিএ কোনো রকমে ঘাটগুলো চালু করে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন