ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বাড়িয়ে দাও সাহায্যের হাত

ইসরাইলি বর্বরতায় ফিলিস্তিনে বিপন্ন শিশুদের পাশে বাংলাদেশ

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

যুদ্ধে রক্তাক্ত নাদিন আবদেল তাইফের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ভাইরাল। ১০ বছর বয়সী ফুটফুটে ছোট্ট এই মেয়েটি ইসরাইলি বাহিনীর বোমা হামলায় ক্ষতবিক্ষত শরীর নিয়ে বিশ্ববাসীর সামনে নিজের অসহায়ত্ব প্রকাশ করে সহায়তা আকুতি জানিয়েছেন। ফিলিস্তিনি নাদিনের রক্তাক্ত শরীর জানান দেয় ফিলিস্তিনিদের ওপর বর্বর ইসরাইলি বাহিনী কত ভয়ঙ্কর নির্যাতন চালাচ্ছে। নাদিনের আর্তি দেখে বিশ্বের অনেকেই চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি। ফিলিস্তিনি সাধারণ নাগরিকদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সারাবিশ্বের শান্তিপ্রেমী মানুষ। নাদিন আবদেল তাইফের মতো ফিলিস্তিনে হাজার হাজার শিশু ইসরাইলি আগ্রাসনের শিকারে পরিণত হয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষও ইসরাইলি বর্বরোতার প্রতিবাদের পাশাপাশি ফিলিস্তিনিদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। ফিলিস্তিনের নিরীহ মুসলমানদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এগিয়ে এসেছেন বাংলাদেশের মানুষ। ঢাকাস্থ ফিলিস্তিন দূতাবাসের অফিসিয়াল পেজে দেয়া নম্বরে যোগাযোগ করে অনেকেই টাকা পাঠাচ্ছেন। ৫ টাকা ১০ টাকা থেকে শুরু করে হাজার হাজার লাখ লাখ টাকা সহায়তা করছেন। এ সব টাকা ইসরাইলের বোমার আঘাতে বিধ্বস্ত শিশুদের সহায়তা করা হবে। এ ছাড়াও প্রতিদিন ইসরাইলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে বিশ্ব জনমত গঠনে বিক্ষোভ প্রতিবাদ করছেন।

ফিলিস্তিনের মুসলমানদের জন্য বাংলাদেশের মানুষের গভীর ভালবাসা দেখে বিস্মিত হয়েছেন ঢাকায় কর্মরত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত ইউসুফ রামাদান। তিনি বলেন, আমার খুব ভালো লেগেছে, অনেক মানুষ আছেন যারা পাঁচ টাকা পর্যন্ত পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষের এ ভালোবাসা দেখে আমি বিস্মিত। তিনি বলেন, আমি জানতাম বাংলাদেশের মানুষ ফিলিস্তিনিদের ভালোবাসেন, কিন্তু এতোটা ভালোবাসেন তা আমি ভাবতেও পারিনি।

রাষ্ট্রদূত ইউসুফ রামাদান বলেন, বাংলাদেশের জনগণের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে কয়েক হাজার ইমেইল বার্তা ও ফোনকল পেয়েছি। পাশাপাশি বাংলাদেশের অনেকেই আমাদের জন্য নগদ অনুদান দিয়ে বন্ধুত্বের নিদর্শন প্রমাণ করেছেন। আবার অনেকেই অনুদান দেওয়ার জন্য আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তাই আমরা আমাদের ফেসবুক পেজে কিছু নম্বর ও তথ্য দিয়েছি, যেন সহযোগিতা আগ্রহী ব্যক্তিরা সহজে সহায়তা করতে পারেন।

আরব বিশ্বসহ বিশ্বের সব দেশের কাছে ফিলিস্তিনের প্রতি সমর্থন, সহযোগিতা ও দোয়া চাই, এমন মন্তব্য করে রাষ্ট্রদূত ইউসুফ রামাদান বলেন, ইসরাইলি বাহিনী ফিলিস্তিনে যে হত্যাকান্ড ও মানবাধিকার বহির্ভূত অপকর্ম করছে, তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। তারা ১৭ বছর ধরে শিশুদের হত্যা করছে, মসজিদে নামাজরত মানুষের ওপর নির্বিচারে গুলি ও বোমা বিস্ফোরণ ঘটাচ্ছে, সাধারণ ও নিরীহ নাগরিকদের আক্রমণ করছে, ফিলিস্তিনে তারা ধ্বংসলীলা ঘটাচ্ছে। তাদের কারণে আমি ২১ বছর ধরে আমার প্রিয় জন্মভূমিতে যেতে পারি না।
ফিলিস্তিনের বর্তমান সংকট উত্তরণে বৈশ্বিক সংগঠনগুলোর সহায়তা প্রয়োজন বলে মনে করেন রাষ্ট্রদূত ইউসুফ রামাদান। তিনি বলেন, আমরা জাতিসংঘ, ওআইসিসহ সব বৈশ্বিক সংগঠনসহ বিশ্বের সবার কাছে ফিলিস্তিনের প্রতি সমর্থন ও দোয়া চাই। ইসরাইলি নারকীয় বাহিনী ফিলিস্তিনের মাটিতে যে ধ্বংসলীলা চালাচ্ছে, তা দৃশ্যমান। ইসরাইল মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে, সেটি বিশ্ববাসী দেখছে। তারা ফিলিস্তিনের জনগণের ঘরবাড়ি অবৈধভাবে দখল করে তাদের বাস্তুচ্যুত করছে। ফিলিস্তিনের জনগণ বিশ্ববাসীর কাছে এই জঘন্য ঘটনার বিচার চায়।

এদিকে, ইসরাইলি বাহিনী ফিলিস্তিনে যে হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে, তার প্রতি তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ। একইসঙ্গে ফিলিস্তিনের প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রত্যয়ও পুনর্ব্যক্ত করেছে। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বিশ্বের কাছে এ ঘটনার সুবিচার দাবি করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। শুধু তাই নয়, ফিলিস্তিনের এই সংকটে দেশটিতে জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জামসহ প্রয়োজনীয় সহযোগিতাও পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ।
ফিলিস্তিনজুড়ে ইসরায়েলি আগ্রাসনের ফলে সৃষ্ট সংকটময় পরিস্থিতিতে নিরীহ মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য উদ্যোগ নিয়েছেন তরুণ রাজনীতিবিদ ফারাজ করিম চৌধুরী। এরই পরিপ্রেক্ষিতে রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত ফিলিস্তিন দূতাবাস ও বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিলিস্তিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে যোগাযোগ করে সহযোগিতার ব্যাপারে আলোচনা করেন তিনি।

এসময় ফিলিস্তিন দূতাবাসের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ওষুধ সামগ্রী সরবরাহ করার আহ্বান জানানো হয়।
এ প্রসঙ্গে ফারাজ করিম চৌধুরী তার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে সবার সহযোগিতা চেয়ে স্ট্যাটাস দিলে ফিলিস্তিনি জনগণকে সাহায্য করতে আগ্রহ প্রকাশ করে অসংখ্য মানুষ। এতে প্রবাসীসহ অনেকেই বিকাশ নম্বরে টাকা পাঠানোর মতামত দেন।

ফিলিস্তিন দূতাবাসকে বিষয়টি অবহিত করা হলে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ দু’টি ফোন নম্বরে (৪১০৮১৩৮২, ৪০১৮০৮৪১) যোগাযোগ করে বিকাশ নম্বর সংগ্রহ করে সহযোগিতা পাঠানোর অনুরোধ জানান।

গত সোমবার (১৭ মে) নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক থেকে লাইভে এসে ফারাজ করিম চৌধুরী বলেন, আজকে সকালে আমি ঢাকায় অবস্থিত ফিলিস্তিনি দূতাবাসে গিয়েছিলাম। সেখানে আমার সঙ্গে রাষ্ট্রদূত ইউসুফ এস ওয়াই রামাদানের সঙ্গে কথা হয়েছে। ওই বললেন ওনারা আসলে প্রথমে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে চাননি। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষের দাবির প্রেক্ষাপটে খুলেছেন। তিনি একটা কথা বলেছেন আমার খুব ভালো লেগেছে, অনেক মানুষ আছেন যারা পাঁচ টাকা পর্যন্ত পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষের এ ভালোবাসা দেখে তিনি অনেকটাই বিস্মিত। কিন্তু উনি জানতো বাংলাদেশের মানুষ ফিলিস্তিনিদের ভালোবাসেন, কিন্তু এতোটা পরিমাণে ভালোবাসেন তা তিনি ভাবতে পারেননি। তিনি বলেন, এ পাঁচ টাকা যারা পাঠিয়েছেন তাদেরও উনি একটি লম্বা মেসেজ দিয়েছেন। যারা টাকা পাঠিয়েছেন তাদের কাছে ফিলিস্তিনি দূতাবাসের মেসেজটি স্মৃতি হিসেবে থাকবে। এসময় আমরা বিকাশের সমস্যার কথা তুলে ধরলাম, কারণ ফিলিস্তিনি দূতাবাস থেকে যে বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর দেওয়া হয়েছে, তার একটা লিমিট আছে। আর এ লিমিটের কারণে অনেকেই পুরোপুরি টাকা পাঠাতে পারছেন না। উনি বললো যে, বিকাশের সঙ্গে কথা বলে লিমিটটা সরানোর (বাড়ানোর) চেষ্টা করবেন এবং একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার চেষ্টা করবেন।

এছাড়া ফিলিস্তিনদের সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশিদের উদ্দেশ্যে কিছু তথ্য তুলে ধরেছেন ফারাজ করিম। তার তথ্যগুলো হুবহু তুলে ধরা হলো।
১. শুধুমাত্র ফিলিস্তিন দূতাবাসের অফিশিয়াল বিকাশ-রকেট-নগদে টাকা দেওয়া যাবে। এই ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে ফিলিস্তিন দূতাবাসে ফোন অথবা ই-মেইল করতে হবে। ফিলিস্তিন দূতাবাসের ফোন নাম্বার, ঠিকানা এবং ই-মেইল গুগলে পাবেন। অথবা ফিলিস্তিন দূতাবাসের অফিশিয়াল ফেইসবুক পেজে যেয়ে তথ্য জেনে নিতে হবে।
২. কেউ যদি সরাসরি টাকা অথবা ওষুধ দিতে চায় তাহলে বারিধারায় অবস্থিত ফিলিস্তিন দূতাবাসে তারা দিতে পারবেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
MD Akkas ১৯ মে, ২০২১, ৯:৩৩ এএম says : 0
আমরা ফিলিস্তিনি ভাই ও বোন এবং শিশুদের প্রতি সমবেদনা জানাই। ইয়া আল্লাহ আমাদের ফিলিস্তিনি ভাই বোনদের সাহায্য করুন।
Total Reply(0)
Md. Shahid Al Islam ১৯ মে, ২০২১, ১২:৪৭ পিএম says : 0
কিন্তু ফিলিস্তিন দূতাবাসের মাধ্যমে পাঠানো সাহায্য গাজা উপত্যকায় তো পৌঁছবে না। বরং অন্য কোন ইসলামী এনজিও খুঁজে নেয়া ভাল।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন