বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ফুটেজ চেয়েছে ডিবি

আজ তিনজন মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন সাংবাদিক নেতারা রোজিনার মোবাইল ফোন যাচ্ছে ফরেনসিকে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০২১, ১২:০০ এএম

সাংবাদিকদের কয়েকটি সংগঠন যৌথভাবে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। এই দাবি নিয়ে তারা আজ রোববার সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। সাংবাদিকনেতারা আশা করছেন, আজ রোজিনা ইসলাম জামিনে মুক্ত হবেন।

অপরদিকে, রোজিনা ইসলামের মামলার তদন্ত শুরু করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি)। ডিবি বলছে, তদন্ত নিজ গতিতে ও সুষ্ঠুভাবে চলছে। তদন্তের শুরুতেই মামলার সব নথিপত্র ও জব্দ হওয়া কাগজপত্র যাচাই-বাছাই শুরু করেছে ডিবি। তদন্তে অধিকতর তথ্যের জন্য রোজিনা ইসলামের জব্দ হওয়া ফোনগুলো পরীক্ষার জন্য ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানোর বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা। ডিবি সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।
সূত্র আরো জানায়, ইতোমধ্যে ঘটনার দিনের সচিবালয়ে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করার জন্য কার্যক্রম শুরু করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা। এছাড়াও রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে নথি চুরি ও ছবি তোলার যে অভিযোগ রয়েছে বিষয়টি সত্য কি-না তাও খতিয়ে দেখছে ডিবি। ডিবির তদন্তে সব কিছু যেন পরিষ্কার ও নির্ভুলভাবে উঠে আসে সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা। এছাড়া প্রয়োজন হলে আসামি ছাড়া আরও লোকজনকে আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি।

ডিবি রমনা বিভাগের ডিসি এইচ এম আজিমুল হক বলেন, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মামলার তদন্তের কাজ শুরু হয়েছে। আমরা সঠিকভাবে তদন্ত সম্পূর্ণ করেই আদালতে প্রতিবেদন জমা দেব। তদন্ত প্রতিবেদন সম্পূর্ণ হতে কত দিন লাগবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মামলার তদন্তের ওপর নির্ভর করছে আমরা কত দিনে শেষ করতে পারব। তবে ঠিক কত দিন লাগবে তা এখনো বলা যাচ্ছে না।
এদিকে, রোজিনা ইসলামের মুক্তি দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন সাংবাদিকরা। এর অংশ হিসেবে গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে বৈঠক করেন সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা। এ সময় সাংবাদিকদের কয়েকটি সংগঠন যৌথভাবে রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। এই দাবি নিয়ে তারা আজ রোববার সরকারের তিনজন মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। সাংবাদিকনেতারা আশা করছেন, আজ রোজিনা ইসলাম জামিনে মুক্ত হবেন। জামিনের আদেশের দিন ধার্য থাকায় বৈঠক মুলতবি করা হয়। বৈঠক শেষে এসব তথ্য জানান ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ ও সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান। এ সময় আরও বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের চেয়ারম্যান রেজোয়ানুল হক।

বৈঠকে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, জাতীয় প্রেসক্লাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টার ও টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে, একই দাবিতে গতকাল রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) প্রাঙ্গণে রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতেক্ষুব্ধ নারী সাংবাদিকেরা প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করেন। সেখানে বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত এবং সাংবাদিক সংগঠনে নেতৃত্ব দেওয়া নারী সাংবাদিকেরা অংশ নেন। এ কর্মসূচিতে প্রথম আলো পরিবারের সদস্যরা সংহতি জানান। এ ছাড়া বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত পুরুষ সাংবাদিকেরাও কর্মসূচিতে অংশ নেন। এ সময় রোজিনা ইসলামের জামিনে মুক্ত হওয়ার পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহার এবং গণমাধ্যমবিরোধী কালাকানুন বাতিল না হওয়া পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তারা।

নারী সাংবাদিকেরা বলেন, ঘটনার পর থেকে কারও চোখেই ঘুম নেই। নারী সাংবাদিকেরা ঘটনার দিন থেকেই পথে আন্দোলন করছেন। রোজিনা ইসলামের মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত তারা মাঠে থাকবেন। রোজিনা ইসলাম এমন কোনো অপরাধ করেননি যে তাকে কারাগারে রাখতে হবে। তাকে রোববার মুক্তি দেওয়া না হলে কঠোর থেকে কঠোরতর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে যেসব অপপ্রচার চালানো হচ্ছে, তাও বন্ধের দাবি জানান তারা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন