বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ধূমপানবিরোধী আন্দোলন প্রয়োজন

আলোচনা সভায় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০২১, ১২:০১ এএম

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‹মাদকাসক্তি শুরু হয় ধুমপান দিয়ে। যদি মাদকাসক্তি বন্ধ করতে চাই, তাহলে সরকারকে পয়লা উদ্যোগ নিতে হবে ধুমপানবিরোধী আন্দোলনের। সেখানে যেমন একটা বিড়ির দাম ন্য‚নতম পাঁচ টাকা করতে হবে। একটা সিগারেটের দাম কমপক্ষে ২০ টাকা করতে হবে। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী মিলনায়তনে বিশ্ব মাদকমুক্ত দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সেভ জেনারেশন বাংলাদেশ ও হেলথ টিভির আয়োজনে বায়োফার্মা লিমিটেড ও হাই-টেক মডার্ন সাইকিয়াট্রিক হাসপাতালের সৌজন্যে ‘মাদক প্রতিরোধে জনসচেতনতার অপরিহার্যতা’ বিষয়ের ওপর এ আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, স্কুল-কলেজের মাস্টাররা লুকিয়ে লুকিয়ে ধুমপান করবেন। আর তাদের ছাত্ররা ধুমপান করবেন না, এটা আশা করা যায় না। যদি মাদকাসক্তি বন্ধ করতে চাই তাহলে সরকারকে পয়লা উদ্যোগ নিতে হবে ধুমপানবিরোধী আন্দোলনের। এনার্জি ড্রিংকসের সমালোচনা করে তিনি বলেন, রাস্তায় এত এক্সিডেন্ট তার একটা মূল কারণ এনার্জি ড্রিংকস। এনার্জি ড্রিংকসে অ্যালকোহলের পরিমাণ থাকে অনেক বেশি। কিন্তু বিয়ারে থাকে মাত্র ২-৩% অ্যালকোহল। আর এনার্জি ড্রিংকসে থাকে ২০-২২% অ্যালকোহল। কাজেই তারা সহজে মাতাল হয়। টেক্সি ড্রাইভাররা, ট্রাক ড্রাইভাররা এনার্জি ড্রিংকস খেয়ে গাড়ি নিয়ে রওনা হয়। এ কারণে বাংলাদেশের রাস্তায় এত বেশি এক্সিডেন্ট হচ্ছে।

তিনি বলেন, মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে সর্বপ্রথম উদ্যোগ নিতে হবে সরকারকে। সর্বপ্রথম ধুমপান বন্ধ করতে হবে। ধুমপান হলো মদ্যপানের প্রথম স্টেপ। আমাদের সবার এ ব্যাপারে সম্মিলিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে।
সেভ জেনারেশন বাংলাদেশ ও হেলথ টিভির চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. মেজর (অব.) আবদুল ওহাব মিনারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের রেসিডেন্ট সাইকিয়াট্রিস্ট ডা. মো. রাহেনুল ইসলাম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন