ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার নবজাতক কাঁদাল বিশ্ববাসীকে

প্রকাশের সময় : ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সিরিয়ায় নির্বিচারে চলছে বিমান হামলা। আইএস দমনের নামে কোথাও বোমা হামলা চালাচ্ছে দেশটির প্রেসিডেন্ট বাসার আল-আসাদের অনুগত বাহিনী ও তার মিত্র রাশিয়ার সেনারা। আবার কোথাও হামলা চালাচ্ছে আমেরিকার বোমারু বিমান। তাদের নির্বিচার এ হামলায় প্রতিদিন নির্মমভাবে মারা যাচ্ছে নারী ও শিশুসহ সিরিয়ার নিরপরাধ সাধারণ মানুষ।
তবে গত বৃহস্পতিবার ইদলিব শহরে চালানো বোমা হামলায় বিধ্বস্ত একটি ভবনের ধ্বংসাবশেষের ভিতর থেকে দুই ঘণ্টা চেষ্টার পর আবু কিফা নামে এক স্বেচ্ছাসেবী মারতুক নামের এক নবজাতককে আহত অবস্থায় উদ্ধার করার দৃশ্য বিশ্ববিবেককে নাড়িয়ে দিয়েছে। আহত এক মাস বয়সী মারতুককে বুকে জড়িয়ে নিজেকে আর ধরে রাখতে পারেননি তিনি। চোখ দিয়ে অঝোর ধারায় গড়িয়ে পড়ছিল পানি। হাউমাউ করে কাঁদতে থাকেন তিনি।
হৃদয়বিদারক সংবাদটি কাভার করতে গিয়ে বিবিসির সাংবাদিক কেট সিলভারটনের একই অবস্থা হয়। তিনিও কেঁদে ফেলেন আহত শিশুটির সংবাদ পরিবেশন করতে গিয়ে। এ খবর শেষ করে অন্য খবর পড়ার সময় তার কান্না থামছিল না।
পরে সাক্ষাৎকারে আবু কিফা বলেন, উদ্ধারকালে তার নিজেকে মারতুকের পিতা বলে মনে হয়েছে। মেয়েটি এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এবং ক্রমেই ভালোর দিকে রয়েছে। ‘ইদলিবের হিরো’ হিসেবে সর্বমহলে উচ্চ প্রশংসায় সিক্ত আবু কিফা আরো বলেন, মারতুককে উদ্ধার সংক্রান্ত সংবাদ উপস্থাপন করতে গিয়ে বিবিসির সাংবাদিক কেট সিলভারটনের কান্না পশ্চিমাদের বিবেককে নাড়া দিবে বলে তার বিশ্বাস।
খবরে এ মর্মান্তিক দৃশ্য দেখে তার সঙ্গে কেঁদেছে বিশ্বের সব বিবেকবান মানুষও। গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে রাশিয়া সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে বিমান হামলা জোরদার করেছে। এ হামলায় বহু সাধারণ মানুষ হতাহত হয়েছেন, এদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। আলেপ্পো শহরের পরিস্থিতি সবচেয়ে ভয়াবহ। শহরটিতে লক্ষাধিক শিশু আটকা পড়ে আছে। নিরাপদ আশ্রয়ে বের হলে আইএস জঙ্গিদের হাতে আটক হতে হচ্ছে। তারা তাদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে। আর বাড়িতে থাকলে দুই পক্ষের বোমা হামলায় বেঘোরে প্রাণ হারাতে হচ্ছে তাদের। সূত্র : ডেইলি মেইল, সিএনএন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
রবিউল ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:২১ পিএম says : 1
সারা বিশ্ব কাদলেও ওই যুদ্ধবাজদের বিবেকে একটু নাড়া দিবে না।
Total Reply(0)
Tarek ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:২২ পিএম says : 0
kobe je ai juddo ses hobe ?
Total Reply(0)
khokan ২ অক্টোবর, ২০১৬, ২:৫০ পিএম says : 0
human-rights , UN , ae shob sudhu name dhari , boka bananor prokolpo , ar koti koti US$ khay but kono kajer na , US
Total Reply(0)
আসমা ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১:০৪ পিএম says : 1
হে আল্লাহ এই জনপদের মানুষের প্রতি তুমি রহমত নাযিল করো।
Total Reply(0)
সোহেল ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১:০৩ পিএম says : 0
আমার মনে হয় যারা এই যুদ্ধকে জিয়িয়ে রেখেছে তারা মানুষ না।
Total Reply(0)
abdulquaiyum chowdhury ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১:০৫ পিএম says : 0
বিশ্ব বিবেক বলে কিছু আছে? সমস্যাটা কি আলোচনার মাধ্যমে সাধান করা যায়না?
Total Reply(0)
Sabbir ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১:০৫ পিএম says : 0
Plz stop this war
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন