ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

রাজধানীতে ছাত্র, যুব, স্বেচ্ছাসেবক ও মহিলা দলের বিক্ষোভ : পুলিশি বাধা গ্রেফতার ১৩

প্রকাশের সময় : ২ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতিবাদে গতকাল রাজধানীতে পৃথকভাবে মিছিল করেছে যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল ও ছাত্রদল। মিছিল থেকে ওই সকল সংগঠনের ১৩ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে পুলিশি বাধায় বিক্ষোভ করতে পারেনি নেতাকর্মীরা।
দুপুর ১টার দিকে রাজধানীর বিজয় নগর পানির ট্যাংকি এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। সংগঠনের সভাপতি রাজীব আহসান এবং সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসানের নেতৃত্বে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা নাজমুল হাসান, আবু আতিক আল হাসান মিন্টু, কাজী মোক্তার, মিনহাজুল ইসলাম ভুইয়া, সেলিনা সুলতানা নিশিতা, বিএম নাজিম মাহমুদ, শাহীন আলম প্রমুখ। মিছিলটি পুরানা পল্টন মোড়ের দিকে এগিয়ে আল রাজী কমপ্লেক্সের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।
জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ঢাকা মহানগর পূর্ব শাখা বিক্ষোভ মিছিল করেছে নয়া পল্টনে। মিছিল থেকে ১২ জনকে আটক করে পল্টন থানা পুলিশ।
ছাত্রদলের দফতর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটোয়ারি জানান, শান্তিনগর পীরসাহেব গলির মাথা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে কাজী মহিউদ্দিন মহি, আরিফুল ইসলাম আরিফ ও মাসুম বিল্লাহ এই তিনজনের নাম জানা গেছে।
এর আগে সকালে রাজধানীর কাকরাইল মোড় এলাকা থেকে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম নীরবের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। এতে সংগঠনের মহানগর শাখার বহু নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ মিছিল শান্তিনগর থেকে শুরু হয়ে কাকরাইলে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম পটু, কাজী রহমান মানিক, সাদরেজ জামান, অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, রফিক হাওলাদার, আওলাদ হোসেন উজ্জ্বল, নজরুল ইসলাম, সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম, ফরহাদ উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মিছিল থেকে মহানগরের স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা অলিউদ্দিন বাবলুকে গ্রেফতার করা হয়।
নবগঠিত মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের নেতৃত্বে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মিছিল করেছে সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, সিনিয়র সহ সভাপতি নুরজাহান ইয়াসমিন, যুগ্ম সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, মহানগর উত্তরের সভাপতি পেয়ারা মোস্তফা, সিনিয়র সহ সভাপতি মেহেরুনন্নেছা, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারা খাতুন, যুগ্ম সম্পাদক রোকেয়া বেগম তামান্না, দক্ষিণের সভাপতি রাজিয়া আলিম, সাধারণ সম্পাদক শামসুন্নাহার যুগ্ম সম্পাদক রোকেয়া চৌধুরী বেবী, সাবেক এমপি শাম্মী আক্তার, শাহানা আক্তার, নিলুফার নীলু, মীর্জা খুশি, মনি বেগম, সুলতানা রাজিয়া শাওন, নুরজাহান প্রমুখ।
তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদ
ঢাকা মহানগরীতে আজ : সারাদেশে
বিএনপির বিক্ষোভ কাল
রাষ্ট্রদ্রোহের একটি মামলায় তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আগামীকাল সোমবার সারাদেশে মহানগর ও জেলা সদরে বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি
গতকাল সকালে নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের পক্ষ থেকে ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন। পাশাপাশি ঢাকা মহানগর বিএনপির এক যৌথসভা থেকে আজ রোববার রাজধানীর সকল থানায় বিক্ষোভ মিছিল ও সোমবার রাজধানীতে সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন মহানগর আহ্বায়ক স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।
নয়া পল্টনের কার্যালয়ে বাদ সম্মেলনে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, সরকার গোড়া থেকেই ভীত হয়ে তারেক রহমানের প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে বিষাদ্গার ও মিথ্যাচার করছে। তারা তারেক রহমানের রাজনৈতিক ইমেজ কালিমালিপ্ত করতে একের পর এক বানোয়াট মামলা দায়ের করে আদালতকে দিয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করছে। এ ঘটনায় আমরা উদ্বেগ প্রকাশ করছি। আমরা অবিলম্বে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থের মামলা প্রত্যাহার করে গ্রেফতারি পরোয়ানা বাতিলের দাবি জানাচ্ছি।
তিনি বলেন, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে জারিকৃত এই গ্রেফতারি পরোয়ানা এবং সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আমি দলের পক্ষ থেকে আগামী ৩ অক্টোবর সারাদেশে মহানগর ও জেলা সদরে বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করছি।
২০১৫ সালে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় দায়ের করা এই মামলার চার্জশীট গ্রহণ করে বৃহস্পতিবার এই পরোয়ানা জারি করেন মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী।
বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক সাত বছর ধরে যুক্তরাজ্যে রয়েছেন। গতবছরের ৫ জানুয়ারি লন্ডন থেকে তারেক রহমানের দেয়া বক্তব্য একুশে টিভি সরাসরি সম্প্রচারের পর ৮ জানুয়ারি এই মামলাটি হয়।
সংবাদ সম্মেলনে দলের কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, গোলাম আকবর খন্দকার, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ, তকদির হোসেন জসিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
রাজধানীতে নেতা-কর্মীদের মিছিলে নামার নির্দেশ
নয়া পল্টনে মহানগর কার্যালয়ের ভাসানী মিলনায়তনে দুইদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে মহানগর আহ্বায়ক মির্জা আব্বাস বলেন, আমাদের কর্মসূচি রোববার (আজ) দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৭টা পর্যন্ত প্রত্যেক থানায় থানায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। মনে রাখবেন, কালকে সকলকে এই মিছিল করতে হবে, এতো ভয় পেলে চলবে না, রাস্তায় নামতে হবে। সেক্ষেত্রে আমরা থাকবো দেখি কে কে কি করে। কোথায় কোথায় মিছিল হবে, তা আগেই জানিয়ে দেয়া হবে।
পরদিন সোমবার (আগামীকাল) ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন অথবা জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে যেখানে স্থান পাওয়া যায়, সেখানে বিকাল তিনটায় বিক্ষোভ-সমাবেশ হবে বলে জানান তিনি।
এছাড়া দলের সদ্য মরহুম নেতা আসম হান্নান শাহের স্মরণে ৫ অক্টোবর আলোচনা সভা হবে। স্থান পরে জানানো হবে বলে জানান মির্জা আব্বাস।
মির্জা আব্বাসের সভাপতিত্বে এই যৌথসভায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুব দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সালাম আজাদ, মহানগর যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী আবুল বাশার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন