মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

শনাক্ত ৭২৯ ব্যক্তি মারা গেছেন ২০৫ জন

দেশে এক বছরে এইডস চালচিত্র

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

করোনাভাইরাস নিয়ে সবাই যখন ব্যতিব্যস্ত তখন দেশে গত এক বছরে নতুন করে আরো ৭২৯ জনের দেহে এইচআইভি ভাইরাস (এইডস) শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের রোহিঙ্গা শরণার্থী আছেন ১৮৮ জন। এছাড়া গত এক বছরে ২০৫ জন এইডস আক্রান্ত ব্যক্তি মারা গেছেন। গতকাল বুধবার রাজধানীর মহাখালীস্থ বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস্ অ্যান্ড সার্জনসে (বিসিপিএস) এইডস দিবসের আলোচনায় এই তথ্য জানানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. মো. খুরশীদ আলম।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশে প্রথম এইচআইভি শনাক্ত হয় ১৯৮৯ সালে। বাংলাদেশে সাধারণ জনগোষ্ঠীর মধ্যে এইচআইভি সংক্রমণের হার ০.০১ শতাংশের নিচে। তবে ঝুঁকিপূর্ণ জনগােষ্ঠীর মধ্যে এই সংক্রমণ কিছুটা বেশি।
প্রবন্ধে বলা হয়, দেশে সম্ভাব্য এইচআইভি আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৪ হাজার জন। তবে ১৯৮৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত মােট এইচআইভি আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৭৬১ জন। মোট মারা গেছেন ১ হাজার ৫৮৮ জন। দেশে গত ১ বছরে মােট এইচআইভি টেস্ট হয়েছে ৬ লাখ ২৮ হাজার ৩১২ জনের। এছাড়া বøাড স্ক্রিনিং করা হয়েছে আরও ৬ লাখ ৬২ হাজার ৭৫৭ জনের।

এতে বলা হয়, গত এক বছরে নতুন আক্রান্তদের মধ্যে সাধারণ জনগোষ্ঠী ১৮৬ জন (২৬%), রোহিঙ্গা ১৮৮ জন (২৬%), বিদেশফেরত প্রবাসী ও তাদের পরিবারের সদস্য ১৪৪ জন (২০%), ইনজেকশনের মাধ্যমে শিরায় মাদক গ্রহণকারী ৬১ জন (৮%), নারী যৌনকর্মী ১৭ জন (২%), সমকামী ৬৭ জন (৯%), পুরুষ যৌনকর্মী ৫৩ জন (৭%) ও ট্রান্সজেন্ডার ১৩ জন (২%)।
ডা. খুরশীদ আলম জানান, গত ১ বছরে আক্রান্ত ৭২৯ জনের মধ্যে চিকিৎসা সেবার (এন্টি রেট্রোভাইরাল থেরাপি) আওতায় এসেছেন ৬৪২ জন। এইচআইভি টেস্টিং এবং চিকিৎসা (অ্যান্টি রেট্রোভাইরাল ড্রাগ) সম্প‚র্ণ বিনামূল্যে দিচ্ছে সরকার। দেশব্যাপী ১১টি সরকারি হাসপাতাল থেকে এইডস আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা (এআরভি) পাচ্ছেন। দেশে সম্ভাব্য এইচআইভি আক্রান্ত ১৪ হাজার ব্যক্তির মধ্যে ৬৩ শতাংশ তাদের এইচআইভি স্ট্যাটাস জানেন। যারা তাদের এইচআইভি আক্রান্ত হওয়ার তথ্য জানেন তাদের মধ্যে ৭৭ শতাংশ চিকিৎসাসেবার (এআরটি) আওতায় আছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের এই কর্মকর্তা জানান, গত এক বছরে যেসব গর্ভবতী মা এআরটি নিচ্ছেন তাদের মধ্যে ইতােমধ্যে ৫৩ জন শিশু জন্ম দিয়েছেন। এই ৫৩ জনের মধ্যে ৪৩ জন শিশু এইচআইভি নেগেটিভ। বাকি শিশুদের পরীক্ষা এখনো শেষ হয়নি। এইচআইভি পজিটিভ গর্ভবতী মা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এআরটি গ্রহণ শুরু করলে তিনি এইচআইভি নেগেটিভ শিশুর জন্ম দিতে পারেন। তিনি আরও জানান, দেশে ইউনিসেফের সহায়তায় মায়ের থেকে শিশুর এইচআইভি সংক্রমণ প্রতিরােধ কার্যক্রম ১৩টি সরকারি হাসপাতালে চালু আছে। পিএমটিসিটি কার্যক্রমের আওতায় গত ১ বছরে এইচআইভি টেস্ট হয়েছে ১ লাখ ১৩ হাজার ২১৯ জনের। ১ বছরে ২১ জন গর্ভবতী নারী এইচআইভি পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। পুরাতন ও নতুন মিলিয়ে ১ বছরে ৭২ জন পিএমটিসিটি সেবা নিচ্ছেন। এআরটি নিচ্ছেন ৭২ জন গর্ভবতী নারী।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মােহাম্মদ খুরশীদ আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব আলী নূর, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ বারদান জুং ব্রানা, বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Md Mahabub Alam ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৪৯ এএম says : 0
১৯৮৯ সালের এইডস আক্রান্ত রোগী যদি এখনো জীবিত থাকে, তাইলে আর এই রোগেরে এতো ডড়ানের কাম কি?
Total Reply(0)
Jamal Mizi ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৫০ এএম says : 0
আলহামদুলিল্লাহ সব সময় নিজেকে সুস্থ মনে করি কিন্তু মাঝেমধ্যে যখন ফেসবুকে অসুস্থ বিষয়ক পোস্ট পড়ি তখন এমনিতেই অসুস্থ অসুস্থ অনুভব হয়
Total Reply(0)
Aminur Rahman ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৫০ এএম says : 0
খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেওয়া উচিত।
Total Reply(0)
Mohammed Saiful ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৫০ এএম says : 0
আল্লাহ এইসব রোগবালাই থেকে রক্ষা করুন খুবই ভয়াবহ ও জটিল একটি রোগ।
Total Reply(0)
Md Tariqul Islam ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৫১ এএম says : 0
আমার কোনো এইডস হবার ঝুঁকি নাই। আমি এখনো ভার্জিন
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন