শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

শিক্ষাদিক্ষা

নবম-দশম শ্রেণীর পড়াশোনা

প্রকাশের সময় : ৩০ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিষয় : রসায়ন

সুরাইয়া বেগম
সহকারী শিক্ষক (রসায়ন)
ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ
প্রিয় নবম ও দশম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী। আজ আমি তোমাদের ‘রাসায়নিক বন্ধন’ অধ্যায় থেকে ১টি সৃজনশীল প্রশ্ন ও তার সমাধান নিয়ে লিখব। লেখাটি পড়লে তোমরা কিছুটা উপকৃত হবে বলে আশা রাখছি।

ছকে প্রদত্ত মৌলসমূহের ইলেকট্রন বিন্যাস পর্যবেক্ষণ করে প্রদত্ত প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।
মৌল    ইলেকট্রন বিন্যাস
ী    ২.৭
ু    ২.৮.১
ু    ২.৮.৮
ক) ইলেকট্রন বিন্যাস কাকে বলে?
খ) ী ও ু মৌল দুটির কোনটি ধাতু কোনটি অধাতু? কেন?
গ) ু মৌলটি কেন ী অথবা ু মৌলের সাথে বিক্রিয়া করে না?
ঘ) ীু যৌগটির গঠন প্রক্রিয়া ব্যাখ্যা কর।

উ : ক) আধুনিক মতবাদ অনুযায়ী ইলেকট্রন পরমাণুর বিভিন্ন শক্তি স্তরে অবস্থান করে নিউক্লিয়াসের চারদিকে পরিভ্রমণ করে। কোনো পরমাণুর বিভিন্ন স্তরে কয়টি ইলেকট্রন কীভাবে আছে তার প্রকাশকে ইলেকট্রন বিন্যাস বলা হয়।

খ) ী মৌলটি অধাতু এবং ু মৌলটি ধাতু।
ু মৌলটি ধাতু কারণ, যে সমস্ত মৌলের ইলেকট্রন বিন্যাসে সর্বশেষ স্তরে ১.২ অথবা ৩টি ইলেকট্রন থাকে তাদেরকে ধাতু বলা হয়। যেহেতু ু এর সর্বশেষ স্তরে একটি ইলেকট্রন বিদ্যমান, অতএব এই মৌলটি ধাতব প্রকৃতির।
ী মৌলটি অধাতু, কারণ আমরা জানি, যে সকল মৌলের সর্ববহিঃস্থ কক্ষপথে ৫.৬ অথবা ৭টি  ইলেকট্রন বিদ্যমান থাকে তাদেরকে অধাতু বলে। যেহেতু ী এর সর্বশেষ স্তরে  ৭টি ইলেকট্রন বিদ্যমান তাই ী মৌলটি অধাতু।

গ) ু মৌলটির ইলেকট্রন বিন্যাস হতে লক্ষ্য করা যায় যে, এর সর্বশেষ স্তরে ইলেকট্রন সংখ্যা ৪। এরূপ ইলেকট্রন বিন্যাস নিষ্ক্রিয় গ্যাসের ইলেকট্রন বিন্যাস। এ ধরনের ইলেকট্রন বিন্যাসের কারণেই নিষ্ক্রিয় মৌলসমূহ স্থিতিশীলতা অর্জন করেছে। এরা রাসায়নিকভাবে সক্রিয় নয়। এরা কোনো মৌলের সাথে সংযুক্ত হতে চায় না। এমনকি নিজেরা নিজেদের সাথেও নয়। তাই নিষ্ক্রিয় গ্যাসসমূহ এক পরমাণুক। দুটি পরমাণু একত্রিত হয়ে অন্যান্য মৌলিক গ্যাসের মতো দ্বি-পরমাণুক অনু গঠন করে না। তাই বলা যায়, অষ্টক পূর্ণ হওয়ায় ু মৌলটি খুবই স্থিতিশীল অবস্থায় আছে, তাই ইলেকট্রন গ্রহণ বা ত্যাগ করে স্থিতিশীল হওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। এ কারণে ু মৌলটি ী অথবা ু এর সাথে কোনো রূপ বিক্রিয়া প্রদর্শন করে না।

ঘ) ী মৌলটির সর্বশেষ স্তরে ৭টি এবং ু মৌলের সর্বশেষ স্তরে ১টি ইলেকট্রন বিদ্যমান। অতএব ী ও ু যুক্ত হয়ে যে যৌগটি গঠন করে তাকে আয়নিক যৌগ বলা হয়। যৌগটির গঠন প্রক্রিয়া নি¤œরূপ :
ী মৌলটি সর্বশেষ স্তরে একটি ইলেকট্রন গ্রহণ করে নিকটস্থ নিষ্ক্রিয় গ্যাস নিয়নের ইলেকট্রন বিন্যাস (২.৮) অর্জন করে। একটি ইলেকট্রন গ্রহণ করায় মৌলটি একক ঋণাত্বক আধান বিশিষ্ট (ী) আয়নে পরিণত হয়। এই অবস্থায় তার ইলেকট্রন বিন্যাস যথেষ্ট স্থিতিশীল হয়।
অপরদিকে ু মৌলটিও তার সর্বশেষ স্তরের একটি ইলেকট্রন ত্যাগ করে নিকটস্থ ও নিষ্ক্রিয় গ্যাস নিয়নের ইলেকট্রন বিন্যাস (২.৮) অর্জন করতে পারে। একটি ইলেকট্রন ত্যাগ করায় ু পরমাণুটি একটি ধনাত্বক আধান  যুক্ত ু+ আয়নে পরিণত হয়। এই পরিবর্তিত অবস্থায় মৌলটি যথেষ্ট স্থিতিশীলতা অর্জন করে। এ ক্ষেত্রে তখন বিপরীত আধানযুক্ত ীÑ ও ণ+ আয়নদ্বয় পরস্পরকে আকর্ষণ করে এবং এভাবে ীু যৌগের সৃষ্টি হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
soma ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:৪৭ পিএম says : 0
i need some creative questions about the 2nd chapter of chemestry
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন