শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

রাজধানীতে জেএমবি সদস্য গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৫ এএম

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) দিনাজপুর ও নীলফামারী জেলার দাওয়াহ শাখার অন্যতম প্রধানকে গ্রেফতার করেছে অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)। গ্রেফতারকতৃ জেমবি সদস্যের নাম হাফেজ মো. ওয়াহিদুল ইসলাম (৩৮)। গত বুধবার রাজধানী থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ও দুইটি সিম কার্ড জব্দ করেছে।

এটিইউ’র দাবি, শিক্ষকতার আড়ালে ওয়াহিদুল দিনাজপুর ও নীলফামারি জেলার জেএমবি’র দাওয়াহ শাখার অন্যতম প্রধান হিসেবে দাওয়াতি ও সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিলেন ওয়াহিদুল।

গতকাল বৃহস্পতিবার এটিইউ’র পুলিশ সুপার (মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস) মোহাম্মদ আসলাম খান বলেন, গত ৪ ডিসেম্বর নীলফামারী জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির ৫ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে নীলফামারী সদর থানায় মামলা হয়। পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃতদের পুলিশ হেফাজতে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তি করে এটিইউ’র একটি গোয়েন্দা দল নীলফামারী ও দিনাজপুর অঞ্চলে অভিযান পরিচালনা করতে থাকে। সেই অভিযানের অংশ হিসেবে গত ১১ ডিসেম্বর এটিইউ নীলফামারী জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে জেএমবি’র ৩ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করে এবং নীলফামারী সদর থানার ওই মামলায় আদালতে সোপর্দ করে।

এতে করে এলাকার সক্রিয় সদস্যরা ঢাকা এবং চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে চলে যায়। এটিইউ’র একটি গোয়েন্দা দল নিজস্ব তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার রাতে ঢাকায় আত্মগোপনে থাকা দিনাজপুর ও নীলফামারি জেলার দাওয়াহ বিভাগের অন্যতম প্রধান হাফেজ ওয়াহিদুল ইসলামকে গাবতলী আরিচা হাইওয়ের এসএস ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসলাম খান বলেন, হাফেজ ওয়াহিদুল ইসলাম দিনাজপুরের খানাসামা থানার মন্ডলের বাজার কুমুড়িয়া হাফিজিয়া মাদরাসার হেফজখানার শিক্ষক। সেখানে শিক্ষকতার আড়ালে তিনি দিনাজপুর ও নীলফামারি জেলার জেএমবি’র দাওয়াহ শাখার অন্যতম প্রধান হিসেবে দাওয়াতি ও সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিলেন। হাফেজ ওয়াহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন