ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

আট কূটনীতিককে পাকিস্তান থেকে প্রত্যাহার করবে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ

পাকিস্তানী ছয় কর্মকর্তাকে দিল্লি থেকে প্রত্যাহারের পর ভারতের পাল্টা সিদ্ধান্ত

প্রকাশের সময় : ৪ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : পাকিস্তান থেকে আট কূটনীতিক ও দূতাবাস কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করবে ভারত। স্থানীয় গণমাধ্যমে তাদের পরিচয় প্রকাশ করার পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রের বরাতে সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে। পাকিস্তানে ওই কূটনীতিকদের নাম ও ছবি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত তথ্যভা-ারে রাখা হয়েছিল বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রগুলো জানিয়েছে। ইসলামাবাদ ভারতের অন্ততপক্ষে পাঁচ কূটনীতিককে সম্ভাব্য গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বহিষ্কার করতে পারে বলে পাকিস্তানি গণমাধ্যমে ইতোমধ্যেই প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রসঙ্গত, নয়া দিল্লির দূতাবাস থেকে পাকিস্তান তাদের ছয় কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করে নেয়ার পর ভারতের এই সিদ্ধান্ত এলো। ওই ছয় পাকিস্তানি দূতাবাস কর্মকর্তা মেহমুদ আখতারের সহযোগী বলে অভিযোগ রয়েছে। মেহমুদ আখতার পাকিস্তানি দূতাবাসে কর্মরত ছিলেন। তাকে গেল সপ্তাহে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বহিষ্কারের পর গ্রেপ্তার করা হয়। ৩৫ বছর বয়সী আখতারকে দিল্লির চিড়িয়াখানা থেকে আটক করে পুলিশ। রাজস্থানের দুই ব্যক্তির কাছ থেকে স্পর্শকাতর তথ্য নেওয়ার সময় তিনি ধরা পড়েন। পুলিশ বলছে, পাকিস্তানের ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স বা আইএসআই তিনবছর আগে তাকে রিক্রুট করে। পরবর্তী সময়ে তাকে দিল্লিতে পাকিস্তানি দূতাবাসে পাঠানো হয়। তিনি ভিসা সেকশনে কাজ করতেন। অভিযোগ রয়েছে, সম্ভাব্য গুপ্তচর সংগ্রহের জন্যই তাকে ওই সেকশনে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদে দিল্লি পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর কাছে আখতার দাবি করেছেন, পাকিস্তানি কূটনৈতিক মিশনে নিয়োজিত আরো ১৬ জন স্পর্শকাতর তথ্য সংগ্রহের লক্ষ্যে গুপ্তচরবৃত্তির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। একজন জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ভারতীয় সামরিক ও সীমান্তরক্ষী বাহিনী সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের লক্ষ্যে ওই দূতাবাসকর্মীরা কাজ করছেন বলে দাবি আখতারের। এদিকে, ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রের বরাতে জানিয়েছে, পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমে আট কূটনীতিকের নাম-পরিচয় প্রকাশ করে সম্মানহানি করায় তাদের দেশে ফিরিয়ে নেয়া হবে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমটি বলছে, গত সপ্তাহে নয়াদিল্লিতে পাকিস্তান হাইকমিশনে কর্মরত ছয় কমকর্তাকে প্রত্যাহারের পর ইসলামবাদ থেকে ভারতীয় কর্মকর্তাদের প্রত্যাহারের এ সিদ্ধান্ত এলো। পাকিস্তান হাইকমিশনের কর্মকর্তা মাহমুদ আখতারকে স্পর্শকাতর গোয়েন্দা নথিপত্রসহ দিল্লি চিড়িয়াখানা থেকে গ্রেফতারের পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, ওই ছয় কর্মকর্তা গুপ্তচরবৃত্তিতে জড়িত। এরপর তাদের বহিষ্কার করে ভারত। এনডিটিভি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন