মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ডিসেম্বর নয়, জুনেই চালু হবে পদ্মা সেতু : অর্থমন্ত্রী

ক্রয় কমিটিতে ১০ প্রস্তাব অনুমোদন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০২২, ১২:০২ এএম

ডিসেম্বরে নয়, অগামী জুন মাসেই পদ্মা সেতু চালু হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, আমরা প্রত্যাশা করে আছি, এ বছরের (অর্থবছর) শেষ নাগাদ এটি চালু করতে পারব, এটা আমাদের প্রত্যাশা। আমাদের ফিন্যান্সিয়াল বছর, যেটি জুনে শেষ হবে। আমরা বিশ্বাস করি এরমধ্যে এটি চালু করতে পারব। আমরা যেটা প্রত্যাশা করেছিলাম মার্চ মাসে আসবে, সেটি মার্চ মাসে এলো না। আমার মনে হয় অনেক লম্বা সময় লাগবে না। তারপরও অস্বাভাবিক সময়ের মাঝ দিয়ে পৃথিবী এখন যাচ্ছে। যে যুদ্ধ চলছে তার কারণে কেউই ইফেকটিভলি কোনো কিছু এখন প্রজেকশন করতে পারে না। কমিটমেন্ট করার অবস্থাও নেই। তবুও আমরা আশায় আছি। এ বছরেই আমরা এটির শেষ দেখতে চাই।

গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক বিষয়ক ও ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। পদ্মা সেতুর টোল প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, টোল আদায় হবে এটা জানি। কিন্তু টোলের পরিমাণ এখনো নির্ধারিত হয়নি। আমরা একটা কথা সুষ্পষ্টভাবে বলতে চাই, পদ্মা সেতুতে আমরা যে পরিমাণ খরচ করেছি, সেটা প‚র্ণমাত্রায় টোল বাবদ আদায় করব। অন্যান্য প্রজেক্টগুলো থেকেও কিন্তু টোল আদায় করছি, এখান (পদ্মাসেতু) থেকেও টোল আদায় হবে। শুধু টোল আদায় হবে না, আমরা প্রফিটও করব। এ প্রজেক্টের জন্য আমরা যে পরিমাণ খরচ করেছি তারচেয়ে বেশি আমরা অর্জন করব। সারা বিশ্বও তাই করে। সারা বিশ্বে এ ধরনের প্রকল্পগুলো টোলভিত্তিকই করা হয়। টোলের হার এখনো ঠিক হয়নি।

শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের নিয়ে বাংলাদেশের শঙ্কার কোনো কারণ থাকতে পারে না বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশের বিদেশি ঋণ তুলনামূলক কম। যাদের এই ঋণ বেশি, তাদের দুশ্চিন্তার কারণ থাকতে পারে। যেসব দেশের জিডিপির তুলনায় ঋণের হার বেশি তারা বিপদে আছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ঋণের হার জিডিপির তুলনায় সহনীয় অবস্থানে। কাজেই, আমরা বিপদে নেই বরং নিরাপদেই আছি।
বর্তমানে বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণের স্থিতি বা পরিমাণ ৪ হাজার ৯৪৫ কোটি ৮০ লাখ (৪৯ দশমিক ৪৫ বিলিয়ন) ডলার। পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, দেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৩ লাখ। এই হিসাবে মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ হয় ২৯২ দশমিক ১১ ডলার।
অন্যদিকে ২ কোটি মানুষের দেশ শ্রীলঙ্কার বিদেশি ঋণের মোট পরিমাণ ৩ হাজার ৩০০ কোটি ডলার। এই হিসাবে মাথাপিছু ঋণের পরিমাণ এক হাজার ৬৫০ ডলার।

অর্থাৎ বাংলাদেশের তুলনায় শ্রীলঙ্কার জনগণের মাথাপিছু ঋণ সাড়ে পাঁচ গুণেরও বেশি। ২০১৪ সাল থেকেই ঋণের বোঝা বাড়তে শুরু করে কলম্বোর। ২০১৯ সালে বিদেশি ঋণ পৌঁছে যায় জিডিপির ৪২ দশমিক ৮ শতাংশে, বাংলাদেশে এটা ১৩ শতাংশেরও নিচে।
শ্রীলঙ্কা অর্থনৈতিক সঙ্গে বাংলাদেশের তুলনা হচ্ছে কেন-এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, আমরা কোনো আলোচনা করেনি। আলোচনা যে কেউ করতে পারে। তবে শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সংকটের ঘটনা আমাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়।

সামষ্টিক অর্থনীতির সূচক এর তথ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, আমাদের রিজার্ভ বাড়ছে, প্রবাসী আয় বা রেমিট্যন্স বাড়ছে। মূল্যস্ফীতিও নিয়ন্ত্রণে। ফলে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আমি মনে করি, বাংলাদেশ নিরাপদেই আছে।

এদিকে গত বুধবার এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গ্রিনটিংও বলেন, বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা হওয়ার কোনো আশঙ্কা নেই। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সামষ্টিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনা খুব ভালো। এ ছাড়া জিডিপির তুলনায় ঋণ-অনুপাত সহনীয় অবস্থানে আছে। সুতরাং ভয়ের কোনো কারণ নেই। শ্রীলঙ্কার চেয়ে ভালো অবস্থানে আছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার মতো বাংলাদেশ তাই সংকটে পড়বে না।

এদিকে গতকাল সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১২তম বৈঠকে মোট ১০টি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অর্থমন্ত্রী বলেন, অনুমোদিত ১০টি প্রস্তাব বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ১ হাজার ৮০৭ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৯৭৯ কোটি ৬২ লাখ ৪ হাজার ৯২ টাকা এবং দেশীয় ব্যাংক ও এক্সিম ব্যাংক অব চায়না থেকে ঋণ হিসেবে পাওয়া যাবে ৮২৮ কোটি ২১ হাজার টাকা। তিনি আরও বলেন, প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের তিনটি, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের দুটি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের একটি, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের একটি, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের একটি ও সেতু বিভাগের একটি প্রস্তাবনা ছিল।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
salman ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৫:০০ এএম says : 0
kar kotha sotti? PM na ki Finance Montri'r ?
Total Reply(0)
সফিক আহমেদ ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৩:৪৬ এএম says : 0
খুবই ভালো খবর
Total Reply(0)
বুলবুল আহমেদ ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৩:৪৬ এএম says : 0
শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের নিয়ে বাংলাদেশের শঙ্কার কোনো কারণ থাকতে পারে না
Total Reply(0)
তফসির আলম ৮ এপ্রিল, ২০২২, ৩:৪৭ এএম says : 0
অর্থমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাবে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps