মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

কমিটি ঘোষণার পরপরই ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

সম্মেলনের ২ বছর ৯ মাস পর গত শুক্রবার ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটি ঘোষণার পর রাতেই সংঘর্ষে জড়ায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার পর সংঘর্ষ শুরু হয়ে চলে কয়েক ঘণ্টা ধরে। নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কক্ষে তালা মেরে দেয় বিক্ষব্ধ পদপ্রত্যাশীরা। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আগামী এক বছরের জন্য ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে রাজিয়া সুলতানার নাম ঘোষণা করা হয়।

জানা যায়, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বেনজির হোসেন নিশির পকেট কমিটি হওয়ায় ক্ষোভে ফেটে পড়ে পদপ্রত্যাশীরা। সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভার বয়স ৩৪ এবং বিবাহিত হবার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও কমিটিতে অছাত্র, বিতর্কিত, বিবাহিতদের পদ দেয়া অভিযোগ উঠেছে। কমিটি ঘোষণার পর রাতে কমিটি ঘোষণার পর আধিপত্য বিস্তারে কমিটিতে বাদ পড়াদের উপর চড়াও হয় নব গঠিত কমিটিতে পদ পাওয়া নেত্রীরা। এরপর দু’গ্রুপে সংঘর্ষে জড়ালে বেশ কয়েকজন আহত ও হলের কিছু কক্ষ ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের একাধিক নেত্রী জানান, কমিটি ঘোষণার পর সন্ধ্যায় তামান্না জেসমিন ও রাজিয়া সুলতানাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কলেজ কমিটি ও কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়া অন্য নেত্রীরা। এরপর রাত নয়টার দিকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হওয়া ইফরাত জাহান, তাজুন্নাহার সোমা ও সাবিকুন্নাহার তামান্না এবং কলেজ কমিটির সহসভাপতির পদ পাওয়া সোনালী আক্তার ও সুস্মিতা বাড়ৈয়ের অনুসারীরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় ছাত্রলীগ কর্মীরা জড়ো হয়ে, ‘ইডেন কলেজের লজ্জা রিভা-রাজিয়া’, ‘সভাপতি-সেক্রেটারি, বাতিল চাই বাতিল চাই’, ‘নিশির রাজত্ব, মানি না মানব না’ ইত্যাদি স্লোগান দেয় তারা।
তাদের অভিযোগ, ত্যাগী ও পরিশ্রমী কর্মীদের বাদ দিয়ে সভাপতি পদে বসানো হয় ৩৪ বছরের একজনকে। যা ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র বিরোধী ও ছাত্ররাজনীতির সাঙ্গে সাংঘর্ষিক। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্রলীগ নেত্রী জানান, রিভা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনজির হোসেন নিশির সকল অপকর্মের ডানহাত হয়ে কাজ করেছেন। সেই সুবাদে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগে শীর্ষ পদ পাইয়ে দিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সাথে তদবির করেন নিশি।
৪৮ সদস্যের এই আংশিক কমিটিতে বাদ পড়া বেশ কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী জানান, নব গঠিত এই কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া রাজিয়াও ইডেন কলেজ ছাত্রলীগে সুপরিচিত ছিল না। কেন্দ্রীয় নেতাদের তদবিরেই হয়েছেন কমিটির সাধারণ সম্পাদক
এদিকে কমিটিতে সহ-সভাপতির পদ পাওয়া সুস্মিতা বাড়ৈ সাংবাদিকদের সাথে খারাপ ব্যবহার করেছেন। তিনি বিবাহিত হয়েও এ পদ পেয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ অভিযোগের বিষয়ে মন্তব্য চাওয়ায় একজন সংবাদকর্মীকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন সুস্মিতা বাড়ৈ। প্রাপ্ত অভিযোগ অনুসারে, ২০১৮ সালের ১ জুলাই চিরঞ্জিৎ রায় নামে এক ব্যক্তিকে বিয়ে করেন সুস্মিতা। নোটারি পাবলিকের কার্যালয়ে তাদের দুজনের করা ‘হিন্দু বিবাহের হলফনামা’র একটি কপিও রয়েছে। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিবাহিত কেউ ছাত্রলীগের পদ পাওয়ার সুযোগ নেই।
এই অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তা অস্বীকার করেন সুস্মিতা বাড়ৈ। তার বিরোধীপক্ষ এই হলফনামা বানিয়ে ছেড়ে দিয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। সুস্মিতা বাড়ৈ বলেন, এ ধরনের কাবিননামা নীলক্ষেতে গেলে একশ টাকা দিয়ে বানানো যায়।এসময় মামলার হুমকি দিয়ে এই নেত্রী বলেন, যদি কোনো সাংবাদিক আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে নিউজ করে, আমি অবশ্যই সেই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করবো। তবে চিরঞ্জিৎ রায়কে নিজের ‘বয়ফ্রেন্ড’ বলে স্বীকার করেন সুস্মিতা। একপর্যায়ে সংবাদকর্মীকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন তিনি। সুস্মিতা বলেন, আমার নামে নিউজ করলে ভেবেচিন্তে করবেন। ইডেন মহিলা কলেজের নতুন কমিটির এক সহ-সভাপতি বলেন, সুস্মিতা বিবাহিত এটা ক্যাম্পাসের সবাই জানে। ওর বিয়ের কাবিননামাও অনেকে দেখেছে। বিবাহিত হয়েও সে কীভাবে পদ পেলো জানি না। ইডেন কলেজের সামনে এক পথচারীকে পেটানোর অভিযোগও ওঠে সুস্মিতার বিরুদ্ধে। এদিকে ২০২০ সালের ১৫ জানুয়ারি ‘ছাত্রলীগ পরিচয়ে নারীকে পেটানোর অভিযোগ ছিল সুস্মিতার বিরুদ্ধে। সুস্মিতা বাড়ৈর বিরুদ্ধে আগে থেকেই ইডেন কলেজে সিট বাণিজ্য, ছাত্রীদের মারধর, মাদকসেবনসহ নানা অভিযোগ আছে। এসব কারণে তিনি বেশ কয়েকবার খবরের শিরোনামও হয়েছেন। এছাড়া সহ-সভাপতি সোনালি আক্তারের বিরুদ্ধেও বিবাহিত হবার অভিযোগ রয়েছে। তার সাথে খুলনার কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান দিদারের বিয়ে হয়েছিল। তবে এসব বিতর্কের বিষয়ে গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, প্রায় ৩ বছর আগে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেসময় যাদের বয়স ঠিক ছিল তাদেরকে এই কমিটিতে বিবেচনা করা হয়েছে। এছাড়াও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়ার ব্যাপারে লেখক ভট্টাচার্য বলেন, তিনি গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps