শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ম্যালেরিয়া রোগীর সংখ্যা বাড়ছে

তিন পার্বত্য জেলার চিত্র

মো. ইব্রাহিম শেখ, খাগড়াছড়ি থেকে | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

পার্বত্য তিন জেলায় ম্যালেরিয়া রোগ ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়েছে। জেলা তিনটি হচ্ছে খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান। গত কয়েক বছর ম্যালেরিয়ার প্রকোপ রোধ করা গেলেও চলতি বছরে আবারো দেখা দিয়েছে। তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ম্যালেরিয়া রোগী শনাক্ত হয়েছে বান্দরবানে। আর দেশের মোট ম্যালেরিয়া রোগীর ৯৪ শতাংশই পার্বত্য তিন জেলায়।

গত বছর বান্দরবান জেলায় শনাক্ত হয় ৫ হাজার ১২৮ জন ম্যালেরিয়া রোগী। রাঙামাটিতে ১ হাজার ৫৬৯ জন। খাগড়াছড়িতে ১০৪ জন। আক্রান্তদের সিংহভাগই বান্দরবান জেলায়। ম্যালেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে বান্দরবান জেলায় গত বছর ২ জন মারা গেছে।

খাগড়াছড়ি জেলার সিভিল সার্জন মো. ছাবের ইনকিলাবকে জানান, খাগড়াছড়ি জেলায় চলতি মাসে এ পর্যন্ত ম্যালেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয়েছে মোট ৯ জন। রাঙামাটির জেলার সিভিল সার্জন বিপাশ খীসা বলেন, রাঙামাটির জেলায় চলতি মাসে এ পর্যন্ত ম্যালেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয়েছে মোট ৩০ জন। তিনি আরো জানান, ‘ম্যালেরিয়াপ্রবণ এলাকা হিসেবে রাঙামাটিতে আইসিইউ সুবিধা দেওয়ার জন্য দীর্ঘদিন ধরে বলে আসছি। আশা করা যায় এবার সেই ব্যবস্থা করা হবে।

বান্দরবান জেলা সিভিল সার্জন নীহার রঞ্জন নন্দী জানান, বান্দরবানে গত বছর ৭২ শতাংশ রোগী শনাক্ত হয়। বিশেষ করে বান্দরবানের থানচি, আলীকদম ও লামা উপজেলায় ম্যালেরিয়া আক্রান্ত রোগী বেশি শনাক্ত হয়েছে। পার্বত্য তিন জেলার কোনো হাসপাতালে আইসিইউ সুবিধা নেই।

তিনি আরো জানান, গত বছর বান্দরবানে ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে দু’জন মারা যায়। তাদের আইসিইউতে নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছিল। ২০২০ সালের তুলনায় ২০২১ সালে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। তিনি বলেন, ম্যালেরিয়া নির্মূলে সরকারের পাশাপাশি তিনটি সহযোগী সংস্থা জেলায় কাজ করছে। তিন পার্বত্য জেলায় আইসিইউ সুবিধা না থাকায় মৃত্যুর ঝুঁকি বেড়ে গেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps