শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

আ.লীগের বিরোধ নেত্রকোনায় পুলিশ পরিচয়ে মেয়রের পিএসকে অপহরণ চেষ্টা চট্টগ্রামে

গ্রেফতার ৫

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২২, ১২:০০ এএম

নগরীতে পুলিশ পরিচয়ে একটি যাত্রীবাহী বাস থামিয়ে আওয়ামী লীগের এক মেয়রের এপিএসকে অপহরণের চেষ্টা হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে নগরীর বাকলিয়া থানা পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, নেত্রকোনার আওয়ামী লীগ দলীয় দুই জনপ্রতিনিধির দ্ব›েদ্বর জেরে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে পৌর মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারীকে অপহরণের চেষ্টা হয়েছে। বুধবার রাতে বাকলিয়া থানার তুলাতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ঘটনার শিকার সাগর খান (২০) নেত্রকোনার দূর্গাপুর পৌরসভার মেয়র মো. আলা উদ্দিন আলালের ব্যক্তিগত সহকারী এবং স্থানীয়ভাবে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। গ্রেফতার পাঁচজন হলেন- আলী আকবর (২৪), শহীদুল ইসলাম শাহীন (২৫), মো. রবিন (২৫), মো. আরাফাত (২২), মো. মিনহাজ (২১)। এরা বাকলিয়া এলাকার বাসিন্দা। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাÐের অভিযোগ আছে পুলিশের কাছে।
বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহিম জানান, মেয়র আলাউদ্দিন আলাল পরিবারের সদস্য ও অনুসারীদের নিয়ে গত ৩০ জুলাই কক্সবাজারে ভ্রমণে যান। সঙ্গে নিয়েছিলেন ব্যক্তিগত সহকারী সাগরকেও। বুধবার রাতে তিনি কক্সবাজার থেকে নেত্রকোনা ফিরছিলেন। ব্যক্তিগত গাড়িতে মেয়র ও তার পরিবারের সদস্যরা ছিলেন। পেছনে বাসে সফরসঙ্গীরা ছিলেন।

বাসটি কর্ণফুলী সেতু পার হওয়ার পর কৃত্রিম উপায়ে যানজট সৃষ্টি করে বাসের গতি স্তিমিত করা হয়। তুলাতলী এলাকায় পৌঁছার পর ১০-১২ জন যুবক পুলিশ পরিচয়ে বাসে ওঠে। এ সময় তারা কয়েকজনের ব্যাগ তল্লাশি করে নাম ধরে সাগরের খোঁজ জানতে চায়। সাগর নিজের পরিচয় দেয়ার পরপরই তাকে কলার ধরে টেনে বাস থেকে নামিয়ে ফেলে। সাগরের চিৎকারে বাসে থাকা মেয়রের অন্য সফরসঙ্গীরা আকবরকে ধরে ফেলে।

ওসি রহিম জানান, ঘটনার সময় তুলাতলী এলাকায় এক পুলিশ সদস্য বিষয়টি দেখতে পান। তিনি জানানোর পর থানা থেকে পুলিশ গিয়ে সাগর ও আকবরকে থানায় নিয়ে যায়। মেয়র ও সফরসঙ্গীদের দেয়া তথ্যমতে এবং সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে আরও চারজনকে শনাক্ত করা হয়। রাতেই বাকলিয়ার বিভিন্ন এলাকা ও কর্ণফুলী থানার মইজ্জ্যার টেক এলাকায় অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর ভোরে মেয়র ও সফরসঙ্গীরা নেত্রকোনার উদ্দেশে রওনা দেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন