শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

জাতীয় সংবাদ

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে নতুন চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৪২ এএম

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন আহমেদ। বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) রাতে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ থেকে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই নিয়োগের কথা জানানো হয়।

প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান, সার্বক্ষণিক সদস্য ও পাঁচজন অবৈতনিক সদস্যকে নিয়োগ দেন। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, কামাল উদ্দিন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে থাকাকালীন বাংলাদেশের সুপ্রিল কোর্টের আপিল বিভাগের একজন বিচারপতির বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা পাবেন।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে সাবেক সচিব সেলিম রেজা। তাকেও মানবাধিকার কমিশন আইন অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নিয়োগ দিয়েছেন বলে লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।
সেলিম রেজা কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালনকালীন সুপ্রিম কোর্টের একজন বিচারপতির বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুবিধাদি পাবেন।
একইসঙ্গে মানবাধিকার কমিশনের অবৈতনিক সদস্য হিসেবে পাঁচ বিশিষ্ট জনকে নিয়োগ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আইন অনুযায়ী অবৈতনিক সদস্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন- সাবেক সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, খাগড়াছড়ির চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি কংজরী চৌধুরী, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য বিশ্বজিৎ চন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক তানিয়া হক এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট কাওসার আহমেদ।

তারা কমিশনের অবৈতনিক সদস্য পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালীন কমিশনের সভায় যোগদানসহ অন্যান্য দায়িত্ব সম্পাদনের জন্য কমিশন নির্ধারিত হারে সম্মানী ও ভাতা পাবেন বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
আহসান ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:৪৫ পিএম says : 0
গত ১১ই ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সেন্টজোসেফের মেধাবী শিক্ষার্থী আদনান তাসিন সড়ক হত্যাকাণ্ডের শিকার হয় ! কলেজ থেকে ফেরার পথে ঢাকা বিমান বন্দর শ্যাওড়া বাস স্ট্যান্ড ে জেব্রা ক্রসিং দিয়ে রাস্তা পারাপারের সময়ে দ্রুতগামি বেপরোয়া বাস থাকে চাপা দিয়ে চলে যায়, এখানে একটা ফুটভারব্রিজ ছিল, কোন বিকল্প না করে, এমন ব্যস্ততম সড়ক থেকে বিকল্প না করে ফুটভারব্রিজ অপসারন করে সড়কের ডিভাইডার কেটে জেব্রা ক্রসিং করে দেয় - বিকল্প না করে ফুটভারব্রিজ অপসারন করার কারনেই মেধাবী শিক্ষার্থী আদনান তাসিন সড়ক হত্যাকাণ্ডের শিকার হয় - কিন্তু কোন প্রতিবাদ না হবার কারনে ও মিডিয়ায় সংবাদটি না আসার কারনে হত্যাকাণ্ডের বিচার হয়নি, আর মেধাবী শিক্ষার্থী আদনান তাসিন এর পিতা ২০১৭ সাল থেকে পারাল্যসিস রোগী তাই বিআরটির ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলাও করতে পারেনি - সেন্টজোসেফের মেধাবী শিক্ষার্থী আদনান তাসিন হত্যাকাণ্ডের বিচার হলে ও বিআরটির ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সাজা হলে আজ উত্তরায় ৫ জনকে প্রান হারাতে হত না
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন