রোববার, ২৮ মে ২০২৩, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ৭ যিলক্বদ ১৪৪৪ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

খোলা জায়গায় ফিলিস্তিনের পতাকা নিষিদ্ধ ইসরাইলের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০২৩, ১২:০১ এএম | আপডেট : ১২:০৯ এএম, ১০ জানুয়ারি, ২০২৩

প্রকাশ্য জনবহুল ও সর্বসাধারণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত এমন স্থানে ফিলিস্তিনের পতাকা প্রদর্শন নিষিদ্ধ করেছে ইসরাইল। ইহুদি এই দেশটির নতুন উগ্র ডানপন্থি জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রী ইতামার বেন-গ্যভির ইতোমধ্যেই পাবলিক স্পেস থেকে ফিলিস্তিনি পতাকা অপসারণের নির্দেশ দিয়েছেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরাইলের নতুন উগ্র ডানপন্থি জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রী ইতামার বেন-গ্যভির রোববার বলেছেন, তিনি পুলিশকে পাবলিক স্পেস থেকে ফিলিস্তিনি পতাকা অপসারণের নির্দেশ দিয়েছেন। রয়টার্স বলছে, ইসরাইলি আইনে ফিলিস্তিনি পতাকাকে বেআইনি বা অবৈধ নয়। তবে জনশৃংখলার জন্য হুমকি রয়েছে বলে মনে করলে যে কোনও বস্তু সরিয়ে ফেলার অধিকার ইসরাইলি পুলিশ ও সৈন্যদের রয়েছে। কট্টর উগ্র ডানপন্থি দলগুলোকে নিয়ে জোট বেঁধে তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় এসেছেন ইসরাইলের নতুন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। নেতানিয়াহুর নতুন সরকারে একটি অতি-জাতীয়তাবাদী দলের প্রধান হিসেবে রয়েছেন বেন-গ্যভির। ইহুদি এই দেশটির নতুন সরকারে ইতামার বেন-গ্যভির জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন এবং মন্ত্রী হিসাবে পুলিশকে তত্ত্বাবধান করেন তিনি। এ কারণে ফিলিস্তিনি পতাকা অপসারণের প্রয়োজনে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন তিনি। রয়টার্স বলছে, ১৯৮৩ সালে এক ইসরাইলি সৈন্যকে অপহরণ ও হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরে বন্দি থাকা এক ফিলিস্তিনি গত সপ্তাহে মুক্তি পান। এরপর উত্তর ইসরাইলে নিজের গ্রামে ওই ফিলিস্তিনিকে বীরের মতো স্বাগত জানানো হয় এবং এ সময় ফিলিস্তিনি পতাকাও উড়ান অন্যরা। আর এরপরই প্রকাশ্য জনবহুল ও সর্বসাধারণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত স্থানে ফিলিস্তিনের পতাকা প্রদর্শন নিষিদ্ধ করে ইসরাইল। বেন-গ্যভির এক বিবৃতিতে বলেছেন, ফিলিস্তিনি পতাকা ওড়ানো এমন একটি কাজ যা সন্ত্রাসবাদীদের সমর্থন করে। রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন