মঙ্গলবার, ০৯ এপ্রিল ২০২৪, ২৬ চৈত্র ১৪৩০, ২৯ রমজান ১৪৪৫ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পরীক্ষার হলে শিক্ষককে ছাত্রলীগের হুমকির প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি

চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২ মার্চ, ২০২৩, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে পরীক্ষার হলে ঢুকে দায়িত্বরত শিক্ষককে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হুমকির প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি। এ প্রেক্ষিতে কমিটি জড়িতদের শাস্তির সুপারিশ করেছে। তদন্ত কমিটি ইনস্টিটিউটের প্রিন্সিপাল বরাবরে গত মঙ্গলবার প্রতিবেদন জমা দেয়। কমিটির প্রধান ইনস্টিটিউটের উপাধ্যক্ষ স্বপন নাথ সাংবাদিকদের বলেন, বাদী-বিবাদী উভয় পক্ষের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছি। আমাদের কাছে কিছু কিছু বিষয় শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে মনে হয়েছে। আমরা সেভাবেই সুপারিশ করেছি।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি ইনস্টিটিউটের চতুর্থ পর্বের পরীক্ষা চলাকালে নকল করতে না দেওয়ায় তিন পরীক্ষার্থী এক ঘণ্টার মধ্যে উত্তরপত্র জমা দিয়ে বের হয়ে যান। তারা হলেন মুহিতুল আজিম, মিফজাহুল আশরাফ ও মোশাররফ হোসেন। তিনজনই ছাত্রলীগের কর্মী। কিছুক্ষণ পর তিন পরীক্ষার্থী ইনস্টিটিউটের ছাত্র সংসদের জিএস শাহদাত হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষার হলে এসে উত্তরপত্র ফেরত চান। এ সময় শাহদাতের সঙ্গে ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা সাদমান সাকিব ও মো. কাউছার। উত্তরপত্র ফেরত দিতে তারা শিক্ষক প্রকাশ সিকদারকে চাপ দেন।

এ সময় প্রকাশ সিকদারকে গালাগাল করে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। কৌশলে এ ঘটনার ভিডিও চিত্র মুঠোফোনে ধারণ করেন প্রকাশ সিকদার। পরে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শহিদুল ইসলাম হলে উপস্থিত হয়ে তিন পরীক্ষার্থীকে উত্তরপত্র ফেরত দেন। ঘটনার পরদিন উপাধ্যক্ষ স্বপন নাথকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে ইনস্টিটিউট কর্তৃপক্ষ। কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন মাইনুল হুদা সিরাজী ও জাবেদ ইকবাল। কমিটি ২৬ জনের সাক্ষ্য নিয়ে ৫ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে।

জানা গেছে, শাহদাত, কাউছার ও সাদমানের বিরুদ্ধে ইনস্টিটিউটের ছাত্রসংসদ পরিচালনা নীতিমালা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। এই নীতিমালায় সর্বোচ্চ শাস্তি ছাত্রসংসদ থেকে বহিষ্কার। শাহদাত ছাত্রলীগ মনোনীত প্যানেল থেকে জিএস হন। তার বিরুদ্ধে ২০২১ সালে আরেক শিক্ষক এম সি আরিফের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগ রয়েছে। কাউছার ও সাদমান ছাত্রসংসদের সদস্য নন। ফলে তাদের বিরুদ্ধে কীভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তা পরিষ্কার নয়।

উত্তরপত্র ফেরত নিয়ে পুনরায় পরীক্ষায় বসা তিন পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে পরীক্ষা নীতিমালা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে। সে ক্ষেত্রে তাদের সংশ্লিষ্ট বিষয়ের পরীক্ষা বাতিল বা বহিষ্কারের শাস্তি হতে পারে বলে জানা গেছে। তবে ছাত্রলীগ নেতারা হুমকি দেওয়ার সময় ভিডিও ধারণ করায় শিক্ষক প্রকাশ সরকারের বিরুদ্ধেও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন