ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ আশ্বিন ১৪২৭, ০৬ সফর ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা উপেক্ষা করে ইরানের আরো ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা

‘হিবরু ইতিহাসের পাতা থেকে ইসরাইলের নাম মুছে যাওয়া উচিত’

প্রকাশের সময় : ১১ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ইরানের রেভলুশনারি গার্ড- আইআরজিসি ইসরাইলে আঘাত হানতে সক্ষম আরও দু’টি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে নতুন হুমকি উপেক্ষা করে ইরান গত বুধবার এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায়। এর আগে গত মঙ্গলবার নিজেদের ক্ষমতা জাহির করতে সামরিক মহড়ার আওতায় কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর ইরান আবারো ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালালো। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ফুটেজে দেখা যায়, ইরানের উত্তরাঞ্চল থেকে দুটি কদর ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করা হচ্ছে। ইরানের এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র দেশটির কড়া সমালোচনা করে তাদের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক আচরণের অভিযোগ তোলে।
এদিকে, ইরান ওই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বরং মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘদিনের হস্তক্ষেপের উদাহরণ টেনে বলেছে, সব দেশেরই আত্মরক্ষার ব্যবস্থা করার অধিকার আছে। আইআরজিসি’র দাবি, ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ১৪০০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির আলি হাজিজাদেহ আইএসএনএ বার্তা সংস্থাকে বলেন, নিরাপদ দূরত্বে থেকে আমরা আমাদের শত্রু ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইলের উপর হামলা চালানোর জন্যই দুই হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র বানিয়েছি।
হিবরু ইতিহাসের পাতা থেকে ইসরাইলের নাম মুছে যাওয়া উচিত- লেখা বাক্য দিয়ে ইরানের সংবাদ সংস্থা আইএসএনএ এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তবে প্রতিবেদনে কোনও ছবি ছিল না। এর জবাবে ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মুসা ইয়ালন স্থানীয় বেতারকে বলেন, গত জানুয়ারিতে বিশ্বশক্তির সঙ্গে ইরানর পরমাণু চুক্তি কার্যকর হওয়ার পরও ইরানের বৈরিভাবের যে কোনও পরিবর্তন হয়নি, এ পরীক্ষার মাধ্যমে সেটিই প্রমাণ হয়েছে। যদিও ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি পশ্চিমাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা শুরু করেছেন। কিন্তু আমার মতে, ইরান সরকারের একটি অংশের মধুর কথায় পশ্চিমা বিশ্বের অনেকে গলে গেছে। অন্যদিকে, ইরান সরকারের অন্য অংশ এখনো সন্ত্রাসীদের জন্য যন্ত্রপাতি ও অস্ত্র তৈরি এবং সরবরাহ অব্যাহত রেখেছে। ইরান নতুন করে ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোয় যুক্তরাষ্ট্র পুনরায় দেশটির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে। বিষয়টি জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের কাছে উত্থাপন করা হবে বলেও জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন কর্মকর্তারা জানান, পরমাণু চুক্তির ২২৩১ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, ইরান পরমাণু অস্ত্র উৎক্ষেপণে সক্ষম কোনো ক্ষেপণাস্ত্রের উন্নতি ঘটাতে পারবে না। বিবিসি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Tamim ১১ মার্চ, ২০১৬, ১০:৫৩ এএম says : 0
very good
Total Reply(0)
harunur rashid ১২ মার্চ, ২০১৬, ১১:০৮ এএম says : 0
Smonta hoyah usit
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন