মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৩ বৈশাখ ১৪৩১, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরী

মহানগর

বৃক্ষমানবের বাম হাতে সফল অস্ত্রোপচার

প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : প্রথম দফায় ডান হাতের শিকড় অপসারণে অস্ত্রোপচারের পর গতকাল শনিবার বৃক্ষমানব আবুল বাজানদারের বাম হাতের শিকড় অপসারণে অস্ত্রোপচার হয়েছে। ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা বলেছেন, প্রথম অস্ত্রোপচারের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে দ্বিতীয় দফা এই অস্ত্রোপচার সফল ও আরো সহজ হয়েছে। বাম হাতের শিকড় অপসারণে বাজানদারের অস্ত্রোপচার শুরু হয় সকাল ১১টায়। তখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে অস্ত্রোপচার কক্ষের বাইরে অধীর অপেক্ষায় ছিলেন আবুল বাজানদারের স্বজনেরা।
মা আমেনা বেগম বলেন, সে আমাকে দোয়া করতে বলে। আমি দোয়া করি সে যেন সুস্থ হয়ে যায়।
আবুল বাজানদারের স্ত্রী হালিমা বেগম বলেন, আমার ছোট মেয়েও সব সময় হাত তুলে দোয়া করে। সে বলে, আমাকে যেন কোলে নিতে পারে, আদর করতে পারে। মেয়ে সব সময়ের জন্য দোয়া করে। গত ২০ ফেব্রæয়ারি প্রথম দফায় অস্ত্রোপচারে ডান হাতের শিকড় অপসারণ করে হাতের পাঁচটি আঙ্গুল স্বাভাবিক আকৃতিতে ফিরিয়ে আনেন চিকিৎসকরা। এর প্রায় এক মাস পর গতকাল শনিবার হয় দ্বিতীয় অস্ত্রোপচার।
আবুলের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সমন্বয়ক প্রফেসর সামন্ত লাল সেন বলেন, একটা অপারেশন ডান হাতে করা হয়েছিল। ওই অভিজ্ঞতাটাই কাজে লাগিয়ে আজ আমরা বাম হাতে আজ সফল ও ফলপ্রসু অপারেশন করেছি। চিকিৎসকরা বলেছেন, ডান হাতের পর বাম হাতকে কর্মক্ষম করা আর পুনরায় শিকড় গজানো প্রতিরোধ করাই তাদের প্রধান চ্যালেঞ্জ। আবুলের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান প্রফেসর ডা. আবুল কালাম, আমেরিকা থেকে পাওয়া ইমেইলটা থেকেই আমরা বুঝতে পারবো সমস্যাটা যেন আবার ফিরে না আসে সেজন্য আমাদের কী কী করণীয়। আবুলের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য অধ্যাপক ডা. কবীর বলেন, ক্লিনিকালি তার আর কোনো সমস্যা নেই। বায়োপসি পেলেই জানা যাবে আর কোনো সমস্যা আছে কিনা। মেডিকেল বোর্ড গতকাল (আজ) রংপুর থেকে আসা একই পরিবারের তিন সদস্যের নমুনা বায়োপসির জন্য সংগ্রহ করেছেন। ওই তিন জনের রোগের লক্ষণও ট্রি সিনড্রোম বলে প্রাথমিকভাবে শনাক্ত করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন