শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সেনা টহল-তল্লাশি বাড়েনি

বিশেষ সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট প্রয়োগে মুখিয়ে আছে দেশবাসী। আজ ভোটের মাঠে অপ্রীতিকর ঘটনা বা ভোটারদের শঙ্কা কাটাতে পুরো রাজধানী নিরাপত্তার আওতার মধ্যে আনা হলেও গতকাল সেনা টহল ও তল্লাশি বাড়ানো হয়নি। রাজধানীর কিছু এলাকায় সেনাবাহিনীর টহল থাকলেও তল্লাশি চোখে পড়েনি। এর আগে গত শুক্রবার বাংলামোটরসহ রাজধানীর বেশ কিছু পয়েণ্টে সেনাবাহিনী যানবাহনে তল্লাশি অভিযান চালানোয় সাধারন মানুষের মধ্যে এক ধরনের উৎসাহ লক্ষ্য করা গেছে।
গতকাল মতিঝিলে রাজিব হাসান নামে একজন ব্যবসায়ী দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, রাজধানীতে সেনাবাহিনীর ক্যাম্প স্থাপন করা হলেও টহল ও তল্লাশি কার্যক্রম তেমন একটা চোখে পড়েনি। রাজধানীসহ সারাদেশের আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি ও নির্বাচনের পরিবেশ সকলেই অবগত রয়েছেন। সেনা বাহিনীর প্রতি এখনও সাধারন মানুষের আস্থা রয়েছে। সেনা টহল ও তল্লাশি জোরদার করা হলে সাধারন মানুষ নিজের ভোট প্রয়োগ করতে আরো বেশি উৎসাহি হতো বলে তিনি মন্তব্য করেন। গত শুক্রবার সেনা টহল ও তল্লাশিকে সাধারন মানুষ স্বাগত জানিয়েছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন।
ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার প্রধান মাসুদুর রহমান বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে নগরীর প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নজর রয়েছে মহাসড়কেও। ভোট কেন্দ্রেও পাহাড়া দেওয়া হচ্ছে।
র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে র‌্যাবের প্রায় ১০ হাজার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। শনিবার মধ্য রাত থেকে র‌্যাবের আরো টহল, নজরদারি ভোট কেন্দ্রেই নয়, পাড়া মহল্লায় বাড়ানো হবে। আর এসব করা হচ্ছে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য বলে র‌্যাব কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। গত ২৭ ডিসেম্বর আইএসপিআরের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সেনাবাহিনী ৩৮৯টি উপজেলায় তাদের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় ১৫২৩টি টহল পরিচালনা করেছে। এছাড়া মোতায়েনের দিন ২৪ ডিসেম্বর থেকে ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত সেনাবাহিনী মোট ৩৯৯৮টি টহল কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। টহলের পাশাপাশি সেনাবাহিনী তার নিজ নিজ দায়িত্বপূর্ণ এলাকার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে নিয়মিতভাবে যোগাযোগ রাখছে এবং যে কোন প্রয়োজনে সার্বিক সহায়তা করতে প্রস্তুত রয়েছে। উল্লেখ্য, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী গত ২৪ ডিসেম্বর হতে দেশের ৬২টি জেলার ৩৮৯টি উপজেলায় মোতায়েন রয়েছে। মোতায়েনের দিন থেকেই সেনাবাহিনী সদস্যগণ তাদের নিজ নিজ দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় নিয়মিতভাবে টহল কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন