ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নতুন বছরে বাড়ল স্বর্ণের দাম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

নতুন বছর শুরু হতে না হতেই দেশের বাজারে বাড়ছে স্বর্ণের দাম। প্রতি ভরি স্বর্ণে সর্বোচ্চ এক হাজার ৫১৬ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়ে নতুন দর নির্ধারণ করেছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। গতকাল মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বাজুস। আজ বুধবার থেকে স্বর্ণের এ নতুন দর কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে সংগঠনটি।
দেশের বাজারে আজ বাড়ছে না স্বর্ণের দাম। মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণার ঘোষণা দিয়ে ছয় ঘণ্টা পরই তা পরিবর্তনের করেছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। আন্তর্জাতিক বাজারে স্বার্ণের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের বাজারেও তা বাড়লো বলে জানিয়েছেন জুয়েলার্স সমিতির সাধারন সম্পাদক দিলীপ কুমার আগারওয়াল। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দেশের বাজারে সোনা রোপার দাম উঠা নামা করে। এ জন্য আজ থেকে বাড়তি দামে স্বর্ণ বিক্রি হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই দাম বহাল থাকবে।
নতুন দাম অনুযায়ী, ২২ ও ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ প্রতিভরিতে বেড়েছে ১ হাজার ৫১৬ টাকা। আর ২১ ক্যারেট স্বর্ণ প্রতিভরিতে বেড়েছে ১ হাজার ৪৫৮ টাকা। তবে অপরিবর্তী রয়েছে সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণ ও রুপার দাম।
বাজুস জানায়, নতুন দাম অনুযায়ী প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৮ হাজার ৯৮৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে । এছাড়া ২১ ক্যারেট ৪৬ হাজার ৬৫৬ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট স্বর্ণের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৪১ হাজার ৬৪০ টাকা। আর প্রতিভরি সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণ অপরিবর্তীত রেখে নির্ধারণ করা হয়েছে ২৭ হাজার ৫৮৫ টাকা। প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপা (ক্যাডমিয়াম) দাম এক হাজার ৫০ টাকা। সারাদেশের স্বর্ণের দোকানগুলোতে গতকাল মঙ্গলবার ( ১ জানুয়ারি) পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ বিক্রি হচ্ছে ৪৭ হাজার ৪৭২ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৫ হাজার ১৯৮ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট ৪০ হাজার ১২৪ টাকায়। এর আগে ২২ ডিসেম্বর এক বিজ্ঞপ্তিতে স্বর্ণের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয় বাজুস। যা ২৩ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর কারার কথা ছিল। কিন্তু দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়ার ৬ ঘণ্টা পরই সিন্ধান্ত পরিবর্তন করে স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। ক্রেতাদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে বড়দিন ও ইংরেজি নববর্ষের কথা নিবেচনায় এনে তা দাম বাড়ানোর সিন্ধান্ত পরিবর্তন করে বলে জানান বাজুসের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগারওয়াল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন