রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পরীক্ষা হবে প্রশ্নফাঁস ও নকলমুক্ত

চট্টগ্রামে শিক্ষামন্ত্রী

চট্টগ্রাম ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

প্রশ্নফাঁসরোধে কঠোর হওয়ার ঘোষণা দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, সব পাবলিক পরীক্ষা হবে প্রশ্নফাঁসমুক্ত ও নকলমুক্ত। তিনি বলেন, শিক্ষা প্রশাসনে অনিয়ম, দুর্নীতি কঠোর হাতে দমন করা হবে। গতকাল (মঙ্গলবার) চট্টগ্রাম কলেজ অডিটোরিয়ামে ‘শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে করণীয়’- শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি) চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয় আয়োজিত এই সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে শিক্ষা নিয়ে বাণিজ্য চলবে না।

শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব পাওয়ার পর শিক্ষক ও শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীর এটাই প্রথম মতবিনিময় সভা। এতে চট্টগ্রাম অঞ্চলের সাত জেলার অর্ধসহস্রাধিক শিক্ষক ও শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তা যোগ দেন। তার আগে সকালে নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে জাতীয় স্কুল ও মাদরাসার শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান নওফেল বক্তব্য রাখেন।

মতবিনিময় সভায় ডা. দীপু মনি শিক্ষক পরিবারের সন্তান হিসাবে গর্বিত উল্লেখ করে তাকে এই মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। বিগত ১০ বছরে শিক্ষাখাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিক্ষার উন্নয়ন বিশেষ করে নারী শিক্ষায় অগ্রগতিতে বাংলাদেশ বিশ্বে এখন রোল মডেল। মন্ত্রী হিসাবে বিগত দিনের যে অর্জন তা ধরে রাখার পাশাপাশি নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। দীপু মনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য হলো শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করা। কারণ উন্নয়নের যে ধারা তাকে টেকসই করতে গুণগত শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

পাবলিক পরিক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের মতো ঘটনাকে লজ্জাজনক উল্লেখ করে তিনি বলেন, এর সাথে কিছু শিক্ষক ও অভিভাবকের জড়িত থাকারও প্রমাণ মিলেছে। এটি আরও বেশি লজ্জার। এবার প্রশ্নফাঁস রোধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এই পরীক্ষা আমাদের জন্যও একটা পরীক্ষা। আমরা এই পরীক্ষায় ভালোভাবে উত্তীর্ণ হতে চাই। এই পরীক্ষা যেন হয় সম্পূর্ণভাবে প্রশ্ন ফাঁসমুক্ত, নকলমুক্ত। গত বছর কোন প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ঘটেনি বলেও জানান তিনি।

অভিভাবক ও পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষার আগে আপনারা কোনো ধরনের অনৈতিক কোনো পথের খোঁজে নামবেন না। আমরা চাই, পরীক্ষার্থীরা সঠিকভাবে পড়াশোনা করবে, ঠিকভাবে পরীক্ষায় অংশ নেবে এবং ভালো ফলাফল করবে। অনৈতিকতার পথে হেঁটে কখনো ভালো ফল পাওয়া যায় না। শিক্ষা প্রশাসনে অনিয়ম দুর্নীতিরোধে কঠোর হবেন জানিয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরোটলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। ফলে সবাইকে সতর্ক হতে হবে। ক্লাশের বদলে শিক্ষার্থীদের প্রাইভেটে যেতে বাধ্য করার ঘটনা নতুন নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিক্ষা নিয়ে এমন ব্যবসা করা যাবে না।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতি। আর এজন্যই তিনি বিগত ১০ বছর শিক্ষাখাতে ব্যাপক বাজেট দিয়েছেন। দেশের অর্থনীতি এগিয়ে যাওয়ার পেছনে শিক্ষাখাতের ভূমিকা উল্লেখযোগ্য মন্তব্য করে তিনি উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখার আহবান জানান। শিক্ষা নিয়ে অনিয়ম দুর্নীতি কঠোর হাতে দমন করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না। কারণ প্রধানমন্ত্রী আমাদেরও ছাড় দেবেন না। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ গোলাম ফারুকের সভাপতিত্বে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ আলমগীর, চট্টগ্রাম কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল হাসান, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম, চট্টগ্রাম সরকারি বাণিজ্য কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আইয়ুব মিয়া, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা অছিউর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Md Asaduzzaman ২৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ২:২৮ এএম says : 0
পরীক্ষার রাতে ফোন ও ইন্টারনেট অফ করে দিলেও বন্ধ হবে না । যারা প্রশ্ন তৈরী করবে তারা বাসায় ডেলিভারী করে দিবে । দূর্নীতিবাজ প্রশাসন কে আগে মাইনাস করতে হবে ।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps