ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পরকীয়ার টানে ৬ সন্তানের জননীকে নিয়ে যুবক লাপাত্তা

ডিমলা (নীলফামারী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১০ জুন, ২০১৯, ১১:৫৫ পিএম

পরকীয়া প্রেমের টানে ৬সন্তানের জননীর সাথে এক সন্তানের যুবক জনক পালিয়ে গিয়ে লাপাত্তা হয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার ভোরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার গয়াবাড়ি ইউনিয়নের কুমলাই পাড়া গ্রামে।

সরেজমিন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে,উপজেলার গয়াবাড়ি ইউনিয়নের কুমলাই পাড়া গ্রামের মৃত,দুলাল হোসেনের স্ত্রী ও ছয় সন্তানের জননী বিধবা জরিনা বেগম(৫০) এর সাথে একই এলাকার মৃত,লুৎফর রহমানের ছেলে ও নেবানল প্রবাসী বিজলী আক্তারের স্বামী এক সন্তানের জনক মমিনুল ইসলাম(৩২) এর দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল।
গত শুক্রবার রাতে পুর্বের ন্যায় প্রেমিক মমিনুল জরিনার বাড়িতে গেলে প্রেমিকা জরিনা তাকে বিয়ে করতে বলায় কৌশলে সে নিজের বাড়িতে ফিরে আসে।সে সময়ে তার সাথে সাথে প্রেমিকা জরিনাও ওই যুবক মমিনুলের বাড়িতে এসে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেয়।এক সময়ে পরকীয়া প্রেমে আসক্ত প্রেমিক-প্রেমিকা দুজনেই বিয়েতে আবদ্ধ হবার সম্মতি প্রকাশ করলেও ঘটনাটি এলাকায় জানা জানি হলে একটি মহল সেখানে উপস্থিত হয়ে ওই দুজনকে বিয়ে না করতে বাধা দিয়ে মারপিট করেন।
পরে শনিবার ভোররাতে সকলের অগোচরে ছয় সন্তানের ওই জননীকে নিয়ে এক সন্তানের যুবক জনক উধাও হয়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গয়াবাড়ি ইউনিয়নের ওই এলাকার ইউপি সদস্য সোলায়মান বলেন, তারা দুজনে বিয়ে করবেন বলে শনিবার ভোরে সকলের চোখ ফাকি দিয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে গয়াবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল হক বলেন,এতবড় একটি ঘটনা ঘটার পরও উক্ত এলাকার ইউপি সদস্য আমাকে কিছুই জানায়নি! আমি এ বিষয়ে কিছুই জানিনা

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন