ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ফটিকছড়িতে মাকে গুলি করতে গিয়ে যুবলীগ সন্ত্রাসীর পিস্তল ধরাশায়ী! ফটিকছড়ি উপজেলা সংবাদদাতা

ফটিকছড়ি উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০১৯, ৮:৫২ পিএম

ফটিকছড়ির নানুপুরে জন্মদায়ীনি মাকে গুলি করতে গিয়ে এক যুবলীগ সন্ত্রাসীর অবৈধ পিস্তল ধরাশায়ী হয়েছে পুলিশের হাতে।

জানা যায়, গত ১৭ জুন সোমবার রাতে দুর্র্ধষ যুবলীগ ক্যাডার শফিউল আজম ওরফে কালা আজম তার মাকে মারতে গেলে ছোটভাই সোহেল তাতে বাধা দেয়। এসময় ক্ষিপ্ত কালা আজম তার মাকে গুলি ছুড়লে গুলিতে ভাই সোহেল হাতে জখমপ্রাপ্ত হয়। পাল্টা হিসেবে ছোটভাই সোহেল কালা আজমকে পেছন দিক থেকে আঘাত করলে সে মাটিতে লুটে পড়ে। স্থানীয় কিছু ছোট কিশোররা তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করে।

পরে অবৈধ অস্ত্রের বিষয়টি আজমের পরিবার পুলিশকে জানালে গত মঙ্গলবার রাত ১০টা নাগাদ পুলিশ নাইন এমএম পিস্তলটি অস্ত্র উদ্ধার করে। সন্ত্রাসী কালা আজম উপজেলার নানুপুর ইউপির ঢালকাটা গ্রামের ছুরান বাড়ীর মৃত আবু তালেবের ছেলে বলে জানা গেছে।

সূত্রে জানা গেছে, কালা আজম দীর্ঘদিন ধরে যুবলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে এলাকায় বিভিন্ন অপরাধ করে আসছিল। সে ইয়াবা সেবন ও বিক্রয়ের সাথে জড়িত বলেও সূত্রের দাবি।

অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি স্বীকার করে ফটিকছড়ি থানার ওসি বাবুল আক্তার বলেন, একটি অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। আসামির নাম শফিউল আজম; প্রকাশ- কালা আজম। সে মা-বোন-ভাইকে মেরেছে। তার মা'র বক্তব্য- তার ছেলের কাছে অস্ত্র আছে। তার মা অস্ত্রটি দেখিয়ে দেয়া মতেই পুলিশ অস্ত্রটি উদ্ধার করে। আজমের বিরুদ্ধে থানায় অস্ত্র আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলা নাম্বার- ৮(৬)২০১৯। মায়ের অভিযোগে যুবলীগ সন্ত্রাসীর অস্ত্র উদ্ধার ঘটনায় ফটিকছড়ি জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃস্টি হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন