বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট এখন নিত্যদিনের ঘটনা

প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জাহাঙ্গীর হোসেন, মির্জাপুর থেকে : ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট এখন নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছে। এতে মহাসড়কে চলাচলকালী হাজার হাজার যাত্রীকে প্রতিদিন চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। মহাসড়ক চার লেন সম্প্রসারণের কাজের জন্য ড্রাম ট্রাক দিয়ে মাটি ফেলার কারণ, চালকদের ওভার টেকিং প্রবণতা, যানবাহন বিকল হওয়া, দুর্ঘটনার কারণে যানজট হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
পুলিশ, যাত্রী ও যানবাহনের চালকরা জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে মহাসড়কের কালিয়াকৈরের চন্দ্রা থেকে কখনও ধেরুয়া, কখনও মির্জাপুর, কখনও জামুকীর্, কখনও করটিয়া, কখনও টাঙ্গাইল বাইপাস এলাকা পর্যন্ত প্রতিদিনই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।
এই যানজট কোন কোন সময় রাতদিন আবার কখনও রাত থেকে পরদিন দুপুর পর্যন্ত স্থায়ী হচ্ছে। এতে মহাসড়কে চলাচলকারী হাজার হাজার যাত্রীকে প্রতিদিন চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিশেষ করে নারী ও শিশু যাত্রীর দুর্ভোগ চরমে পৌছায় বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাত থেকে মহাসড়কে যানজট লাগে। যা চন্দ্রা মোড় থেকে মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই পর্যন্ত প্রয় ৮ কিলোমিটার এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়। যানজট শুক্রবার বেলা ১২টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকে।
গত ২৮ মে যানজটের কারণে মির্জাপুরে নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনে বিঘœ ঘটে। সবকিছু ঠিক থাকার পরও নির্বাচনের দিন মহাসড়কে যানজটের কারণে কাজে বিঘœ ঘটেছে বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাসুম আহমেদ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
টাঙ্গাইলের ট্রাফিক পুলিশ ইন্সপেক্টর রফিকুল ইসলাম জানান, এই যানজটের অন্যতম কারণ হলো মহাসড়ক সম্প্রসারণ কাজে রাত্রিতে মহাসড়কের উভয় পাশে ড্রাম ট্রাক দিয়ে মাটি ফেলা। কখনও কখনও ওই ড্রাম ট্রাক বিকল হয়েও যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।
টাঙ্গাইল জেলা বাস-কোচ মিনিবাস শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান লাজলু জানান, রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য শুরু হওয়া কাজ পরিকল্পিতভাবে করা হচ্ছে না। দিনেরাতে সমানে ড্রাম ট্রাক দিয়ে মাটি ফেলা হচ্ছে। এতে ঠিকমত যানবাহন চলাচল করতে না পারায় যানজট লাগছে। যাত্রীদের দুর্ভোগ ক্রমেই বেড়ে যাচ্ছে। কয়েকদিন পর রমজান শুরু। মহাসড়কে পরিকল্পিতভাবে কাজ না করা হলে রমজান মাসে যাত্রীদের দুর্ভোগ বেড়ে যাবে। তাছাড়া ২০ রোজার পর থেকে মহাসড়ক সম্প্রসারণের কাজ কমপক্ষে ১৫ দিন বন্ধ রাখার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন