ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বাসের প্রতিযোগিতায় প্রাণ গেল ৪ জনের

বিভিন্ন স্থানে নিহত আরো ৬

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ঠাকুরগাঁও রাজু পরিবহন ও সোনার বাংলা দুটি বাসের প্রতিযোগিতায় প্রাণ হারালো চারজন। গতকাল সকালে বাস দুটি একে অপরকে ওভারটেক করতে গিয়ে সালন্দর ডেনিস এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে আরো ৬ হন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে হবিগঞ্জে ২, ঢাকা, জামালপুর, শেরপুর ও ধামরাইয়ে একজন করে। আহত হয়েছেন ১৪ জন।

ঢাকা : রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ফ্লাইওভারের নিচে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলা মোটরসাইকেলকে একটি বাস চাপা দেওয়ায় মোটরসাইকেল চালক ইমারত আলী (৪৮) মারা গেছেন। একই ঘটনায় ছেলে ইমন (২১) গুরুতর আহত হয়েছেন। গতকাল বেলা পৌনে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা সাড়ে ৪টার দিকে ইমারত আলীকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত ইমারত আলী নারায়ণগঞ্জ ইপিজেডের একটি কারখানায় স্টোর কিপারের দায়িত্বে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী রাসেল জানায়, যাত্রাবাড়ী কুতুবখালী মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের নিচে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে যায়। পরে একটি বাস তাদের চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। সহকর্মী আবু বক্কর জানায়, তাদের বাড়ি ফরিদপুরে। থাকেন নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জের হীরাঝিল এলাকায়। আহত ইমন তেজগাঁও পলিটেকনিক কলেজের ছাত্র।
ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নে দুই বাসের সংঘর্ষে এক চালকসহ চারজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১৯ জন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়কের পুরাতন ডেনিস হাসপাতালের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- রাজু এন্টারপ্রাইজের চালক বাবুল (২০), বাসযাত্রী পঞ্চগড় জেলার চকলাই হাট এলাকার কামরুজ্জামান বাবু (৪২), ঠাকুরগাঁও নারগুন এলাকার আবুল কালাম আজাদ (৩৫) ও শহরের আশ্রমপুর এলাকার মজিবর রহমান (৬০)।
প্রত্যক্ষদর্শী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, সকালে সালন্দর ডেনিস এলাকায় সোনার বাংলা পরিবহনের একটি বাস ওভারটেক করতে গিয়ে পেছন থেকে রাজু এন্টারপ্রাইজ নামে অপর একটি বাস ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান রাজু এন্টারপ্রাইজের চালক ও এক যাত্রী। পরে আহতদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও একজন মারা যান।

জামালপুর : জামালপুরের মাদারগঞ্জে সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও পিকআপভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে রিপন (৩৫) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। গতকাল বিকেলে উপজেলারভেলামারী এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রিপন উপজেলার গুনারিতলা ইউনিয়নের বাকুরচর গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে। মাদারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, বিকেলে উপজেলার কড়ুইচুড়া ইউনিয়নের ভেলামারী এলাকায় জামালপুরগামী যাত্রীবাহী সিএনজি অটোরিকশার সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগতির একটি পিকআপভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অটোরিকশার যাত্রী রিপন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ সময় আরও তিনজন আহত হয়েছেন।
ধামরাই : ঢাকার ধামরাইয়ের বেলিশ্ব
র এলাকায় পিকআপ ভ্যান থেকে পড়ে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল দুপুরে জমসিং-বাথুলি বাইপাস সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, জর্দা বোঝাই একটি পিকআপ ভ্যানের ওপরে বসা ছিলেন ওই যুবকসহ আরও তিনজন। পিকআপটি ধামরাইয়ের জমসিং-বাথুলি বাইপাস সড়ক হয়ে বাথুলির দিকে যাওয়ার পথে বেলিশ্বর এলাকায় পিকআপ থেকে ছিটকে সড়কের ওপর পড়লে ঘটনাস্থলেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়। নিহত ওই যুবক মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া এলাকার বাসিন্দা ও বাক প্রতিবন্ধী বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে বিস্তারিত পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।
হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের মাধবপুরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত জুনাইদ মিয়া (২০) সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুইজনে। এর আগে, গত বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার কাউছার নগর এলাকায় একটি মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় একটি ট্রাক। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান মোটরসাইকেল চালক কাশিননগর গ্রামের আউয়াল মিয়ার ছেলে আশিক মিয়া (২৭)। এছাড়াও আহত হন দুই আরোহী জুনাইদ মিয়া এবং একই গ্রামের এলাছ মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া। তাদের উদ্ধার করে সিলেটের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জুনাইদ মারা যান। এছাড়া সুমনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
শেরপুর : শেরপুর জেলা সদরের গৌরীপুর সোনার বাংলা বাসস্ট্যান্ডে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে দুই বাসের চাপায় খোদেজা বেগম (৬০) নামে এক বৃদ্ধা মারা গেছেন। নিহত বৃদ্ধা শেরপুর সদর উপজেলার চরপক্ষীমারি ইউনিয়নের মৃত জয়নালের স্ত্রী।
চবি : চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের একটি শিক্ষক বাস দুর্ঘটনায় পড়েছে। এত শিক্ষকসহ আহত হয়েছেন আটজন। গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়কের বড়দিঘির পাড় নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ৪ শিক্ষক, বাসের চালক ও সহযোগীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে অন্য দু‘জনকে একটি প্রাইভেট মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।
বিশ^বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সহকারী প্রক্টর মোহাম্মদ ইয়াকুব দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, ঘটনা ঘটার সাথে সাথে মেডিকেলে নেওয়া হয়েছে। কয়েকজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বাকিদেও চিকিৎসা চলছে আশা করছি তাঁরা দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন