ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

আগামী বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীরা নতুন বইয়ের সাথে ২হাজার টাকা পাবে স্কুল ড্রেসের জন্য- প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন

কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়ন সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:২৪ পিএম

কুড়িগ্রামে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়ন সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা শনিবার জেলা প্রশাসন স্বপ্নকুঁড়ি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন এমপি।

প্রধান অতিথি প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন এমপি বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। মেধাবী জাতী গঠনে প্রাথমিক শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। কারণ আজকের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ২০৪১ সালে যুবক হবে। যারা নেতৃত্ব দেবে উন্নত রাষ্ট্রের। তাই আগামী বছরের শুরু দিন দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বইয়ের পাশাপাশি স্কুল ড্রেসের জন্য দেয়া হবে ২হাজার টাকা। বিদ্যালয় গুলোকে দৃষ্টি নন্দন ও আধুনিকায়ন করা হচ্ছে। আকর্ষণীয় করে সাজানো হচ্ছে ক্লাস রুম। আনন্দঘন পরিবেশে পাঠদান নিশ্চিত করতে সরকারের এতসব আয়োজন। কাজেই সরকারের মান সম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত কল্পে গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পে যারা দুর্নীতি করছেন তাঁরা কেউ মাপ পাবেন না। তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। মনে রাখবেন প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতির ব্যাপারে ‘জিরো টলারেন্স’ ঘোষনা করেছেন।

জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বদরুল হাসান বাবুল, রংপুর বিভাগীয় উপ-পরিচালক আব্দুল ওহাব, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম,জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, প্রেস ক্লাবের সভাপতি এ্যাডভোকেট আহসান হাবীব নীলু, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, তৌফিকুল ইসলাম, মোজাম্মেল হক, লস্কর আলী প্রমূখ। সভায় জেলার সকল উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা, সহকারী উপজেলা ইন্সট্রাক্টর, ইউআরসি ইন্সট্রাক্টর, পিটিআই ইন্সট্রাক্টর, উপজেলা প্রকৌশলী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পিটিআই সুপারসহ প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের সকল কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বিকাল ৩টায় কুড়িগ্রাম পৌরসভার ১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চতকরণে পরীক্ষামূলকভাবে এক শিফটের বিদ্যালয়ের সময়সূচীর (ক্লাস রুটিন) উদ্ভোধন করেন। এ বিদ্যালয়ে এখন থেকে সকাল ৯টা ৩০মিনিটে শরীরচর্চা ও ১০টা ক্লাস শুরু হবে। ৪৫মিনিট ক্লাস করবার পর ১৫মিনিট বিরতী। এসময় শিক্ষক শিক্ষার্থীদের খেলার ছলে পড়াবেন। আর ছুটি হবে বিকাল ৩টা ৪৫মিনিটে।

এসময় তিনি বলেন, আনন্দপূর্ণ পাঠদান কার্যক্রম চালু করার লক্ষে পরীক্ষা মুলক ৪টি স্কুল বাছাই করা হয়েছে। স্কুলগুলো হলো- কুড়িগ্রাম পৌরসভার ১ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রৌমারী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নেত্রকোনার ৩৬নং বালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাগুরা জেলার হাজিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। সফলতা পেলে সকল বিদ্যালয়ে একই সময় সুচি চালু করা হবে। শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা ৩০মিনিটের বিশ্রামের সময় পাবেন। প্রতি ক্লাসের শেষে ১৫মিনিটের বিশ্রামের সময়ে খেলার ছলে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল ও উদ্ভাবনী কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, জাতীয় দিবস পালনের জন্য সরকার এই প্রথম (১৫ আগষ্ট উপলক্ষ্যে) সকল বিদ্যালয়কে অনুষ্ঠানবাবদ ২হাজার টাকা দিয়েছে। আগামী বছর থেকে এ টাকার পরিমান বৃদ্ধি করে ৫হাজার টাকা করা হবে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত স্কুলপ্রতি ৫লক্ষ টাকা দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। পিডিইপি প্রকল্পের আওতায় দেশের ৩ ও ৬ ক্লাস রুমের স্কুল গুলোকে পর্যাক্রমে ৯ ক্লাস রুমের স্কুলে পরিনত করা হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন হবার পরপরই সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেন। এরপর ২৮বছর প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়ন হয়নি। আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০১৩সালে একসাথে ২৬হাজার ১৯৩টি বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ‘আমাদের প্রাথমিক শিক্ষার মান হবে পৃথিবীতে রোলমডেল’। আর এজন্য তিনি সকল শিক্ষক, শিক্ষা কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের অতিরিক্ত ২ঘন্টা বেশী কাজ করার আহ্বান জানান। কারণ স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের রক্তের ঋণ আমাদের শোধ করতে হবে।

এরপর মন্ত্রী রাজারহাট চাকিরপশার তালুক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রাজারহাট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। এখানে রাজারহাট উপজেলাকে শতভাগ স্কাউট উপজেলা ঘোষনা করা হয়। শিক্ষক ও শিক্থার্থীদের বই পড়ায় উদ্বুদ্ধ করতে উদ্বোধন করা হয় বাতিঘর প্রোগ্রাম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
মোঃ আবদুল আলিম ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:২৭ পিএম says : 0
মাদ্রাসা সংলগ্ন ইবতেদায়ী কি ক্ষতি করলো তারা কেন এ সুযোগ হতে বঞ্চিত হবে তারা ওতো বাংলাদেশে নাগরিক আমার বিশ্বাস তারা মাদ্রাসায় পড়ে। কি তাদের অপরাধ জানতে চাই?
Total Reply(0)
মোঃ আবদুল আলিম ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:২৭ পিএম says : 0
মাদ্রাসা সংলগ্ন ইবতেদায়ী কি ক্ষতি করলো তারা কেন এ সুযোগ হতে বঞ্চিত হবে তারা ওতো বাংলাদেশে নাগরিক আমার বিশ্বাস তারা মাদ্রাসায় পড়ে। কি তাদের অপরাধ জানতে চাই?
Total Reply(0)
md.lokman hossain ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৪:০৬ পিএম says : 0
এই কার্যক্রম কি কিন্ডার গার্টেনের জন্য ও প্রজোয্য ?
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন