ঢাকা, বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১০ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পঞ্চগড়ে ধান ক্ষেতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামীসহ আটক ৩

পঞ্চগড় জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৯, ৭:০১ পিএম

পঞ্চগড়ে একটি ধানক্ষেত থেকে গলাকাটা অবস্থায় কল্পনা আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের সর্দারপাড়া গ্রামের একটি ধান ক্ষেত থেকে ওই গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত কল্পনা ওই গ্রামের মনিরের স্ত্রী। তাদের পাঁচ বছর বয়সী এক কন্যা শিশু রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ নিহত গৃহবধুর স্বামী মনিরুজ্জামান মনির, শ্বশুর আব্দুল জলিল ডাক্তার ও শাশুরী মনোয়ারা বেগম ময়নাকে আটক করেছে পুলিশ।
স্থানীয় ও পুলিশ জানায়, সকালে ধান ক্ষেতে কয়েকজন ওই গৃহবধূর গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।
নিহত কল্পনার ভাই হযরত আলী জানান, পারিবারিক কলহের জেরে কিছুদিন আগে কল্পনা স্বামীর বাড়ি থেকে বোদা উপজেলার মাড়েয়া ইউনিয়নের কাউয়াখাল গ্রামের বাবা আব্দুল করিমের বাড়িতে যায়। এরপর গত ৬ দিন আগে দুই পরিবারের সমঝোতার মাধ্যমে কল্পনাকে বাড়িতে নিয়ে আসে তার স্বামী মনির ও পরিবারের লোকজন। তার দাবি তার বোন কল্পনাকে পরিকল্পিত ভাবে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।
পঞ্চগড় সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু আক্কাছ আহম্মদ গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশের সুরত হাল করে ময়নাতদন্তের জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। এ ব্যাপারে পঞ্চগড় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত গৃহবধুর স্বামী, শ্বশুর ও শাশুরীকে আটক করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন