ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:২৯ পিএম

বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আজ একটি বিক্ষোভ মিছিল কলাবাগান বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হয়ে ল্যাব এইড হাসপাতালের নিকট গিয়ে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। মিছিলে অংশগ্রহণ করেন ঢাকা জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবু আশফাক, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি মাহমুদুর রহমান সুমন, পশ্চিম ছাত্রদল নেতা কামরুজ্জামান জুয়েল এবং যুবদল নেতা সোহেলসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।
মিছিল শেষে এক পথসভায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেন,
বিএনপি চেয়ারপার্সন ও চারবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা ক্রমান্বয়ে চরম অবনতির দিকে ধাবিত হচ্ছে। দেশনেত্রীকে চিকিৎসা দেয়ার নামে নানা টালবাহানা ও জনগণকে ধোকা দেয়ার চেষ্টা করছে সরকার। জনগনের দাবি উপেক্ষা করে বেগম জিয়াকে কোন বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসার সুযোগ দেয়া হয়নি। তাঁর শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটা সত্বেও সরকারের লোকেরা বেগম জিয়া সুস্থ আছেন বলে তোতা পাখির মতো সরকারের শেখানো বুলি আউড়িয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলতে চাই-বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দী করে বিনা চিকিৎসায় আপনি অমানবিক কষ্ট দিচ্ছেন, বেগম জিয়ার প্রতি এই নিষ্ঠুরতা বিশ্বের স্বৈরশাসকরা যে আচরণ করে সেই আচরণেরই সমতুল্য। বেগম জিয়াকে আর কষ্ট না দিয়ে তাঁকে নি:শর্ত মুক্তি দিন। আপনি জনগণের পুঞ্জিভুত ক্রোধ আঁচ করতে পারছেন না বলেই বিএনপি চেয়ারপার্সনকে মুক্তি না দিয়ে তাঁকে তিলে তিলে নি:শেষ করার চেষ্টায় উঠেপড়ে লেগেছেন। কিন্তু আপনার নেতৃত্বে পরিচালিত ফ্যাসিবাদী সরকারের লোহার খাঁচা ভেঙ্গে দেশনেত্রীকে মুক্ত করার জন্য জনগণ এখন চূড়ান্ত প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। দেশে ভয়াবহ দু:শাসনসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতিতে জনগণের এখন নাভিশ্বাস উঠেছে, দেশ পরিচালনায় আপনারা এখন চারিদিক দিয়েই ব্যর্থ। বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর ভয়াবহ দু:শাসনকে প্রতিরোধ করার জন্য মানুষ এখন পথে পথে প্রস্তুত হয়ে রয়েছে। সরকারের উদ্দেশ্যে বলতে চাই-পৃথিবীর অতীত ইতিহাস ভুলে যাবেন না, কোন স্বৈরাচারী শাসক এভাবে দেশে দু:শাসন চালু রেখে জনগণের রোষানল থেকে রেহাই পায়নি। যুগে যুগে বিশে^ স্বৈরশাহীর পতনের মতোই আপনাদেরও যেকোন মূহুর্তে পতনের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।
আমি আবারও অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।”
বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এর নেতৃত্বে মিছিল শুরু হলে মিছিলে অংশগ্রহণকারী নেতাকর্মীরা বিএনপি চেয়ারপার্সন ও ‘গণতন্ত্রের মা’ এদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তি ও বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সোচ্চার কন্ঠে শ্লোগান দিয়ে রাজপথ কাঁপিয়ে তোলেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ahammad ২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:৫৩ পিএম says : 0
জনাব,তেলাপোকার মত গর্তে লুকিয়ে না থেকে,বাঘের মত গর্জ্যন করে মৃত্যুই শ্রেয়। জনবিচ্ছিন্ন সরকার বিরোধীদলের কোন মিছিল মিটিং দেখলেই তাদের মাথা খারাপ হয়ে যায়। তারা ভালো করেই জানে তাদের জন সর্মথন নেই,তারা জনবিচ্ছিন্ন,তাদের পায়ের নিছে মাটি নাই। তাই তারা উচিলাখোজে মামলা,হামলা,জেলঝুলুম করে যতদিন বিরোধীদলকে দমীয়ে রাখা যায় ততদিনই গদী টিকিয়ে রাখাযাবে। তাই জনগনের মুক্তির জন্য ন্যায় সংগত আন্দোলন ছালিয়ে যেতেই হবে।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন