ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬, ০১ রজব ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইরান সীমান্তে মার্কিন যুদ্ধবিমানগুলো বিভ্রান্তিতে পড়ছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২০, ৫:১৯ পিএম

রাশিয়ার জ্যামিং (জিপিএস সিস্টেম অকেজো করার ব্যবস্থা) সরঞ্জামাদি মার্কিন যুদ্ধবিমানগুলোর জন্য খুবই ভীতির কারণ হয়ে উঠেছে। সম্প্রতি ইরান সীমান্তে মার্কিন যুদ্ধবিমানকে কোনোমতেই স্বস্তি দিচ্ছে না রাশিয়া। বিভিন্ন ধরনের আধুনিক সরঞ্জাম ব্যবহার করে মার্কিন যুদ্ধবিমানগুলোর জিপিএস সিস্টেম (নির্দিষ্ট স্থান খুঁজে পাওয়ার ব্যবস্থা) অকেজো করে দিচ্ছে রুশ সামরিকবাহিনী। এতে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে কোনো হামলা চালাতে পারছে না যুক্তরাষ্ট্র।
মার্কিন ম্যাগাজিন দ্য ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধবিমানের অসহায়ত্বের এ বিষয়টি উঠে এসেছে।
শুধু ইরান সীমান্তে নয়, পুরো মধ্যপ্রাচ্যেই মার্কিন যুদ্ধবিমানের যোগাযোগ ব্যবস্থায় প্রভাব ফেলছে রাশিয়া। এর মাধ্যমে রুশ সামরিকবাহিনী তাদের সক্ষমতাও পরীক্ষা করছে। এর মাধ্যমে মার্কিন যুদ্ধবিমানের বিরুদ্ধে তাদের সরঞ্জাম কেমন কার্যকর সেটি বেশ ভালোভাবেই বুঝতে পারছে তারা।
এর আগে গত বছরের জুনে ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইসরায়েল এক প্রতিবেদনে জানায়, গত বসন্ত থেকে মধ্যপ্রাচ্যে প্রবেশ করার পরই পাইলটরা লক্ষ্য করছেন- জিপিএস সিস্টেম ভুল তথ্য দিচ্ছে। এমনকি কোনো কোনো সময় এটি কাজই বন্ধ করে দেয়।
মার্কিন যুদ্ধবিমানের পাশাপাশি ইউরোপের অনেক দেশের যুদ্ধবিমানের বিরুদ্ধেও জিপিএস অকেজো করার কার্যক্রম পরীক্ষা করেছে রাশিয়া। এতে রুশ সামরিকবাহিনী সফলই হয়েছে।
এমন পরিস্থিতিতে বিশ্লেষকরা বলছেন, রাশিয়া যদি এই ব্যবস্থা কার্যকর করে তাহলে কোনোদিনই ইরানের ভেতর নির্দিষ্ট লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারবে না মার্কিন যুদ্ধবিমান। এমনকি কোনো দেশের যুদ্ধবিমানই হামলা চালাতে পারবে না। যুদ্ধবিমানের পাইলটদের কাছে মনে হবে, তারা ঠিক জায়গায় আঘাত হেনেছে। কিন্তু বাস্তবে সেটি গিয়ে পড়বে অন্য জায়গায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (16)
Right decision destroy Israel and America. ২১ জানুয়ারি, ২০২০, ১১:১৫ পিএম says : 4
Right decision destroy Israel and America Insallah.
Total Reply(0)
Kefayet ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৩:৩০ পিএম says : 0
Allahu akbar
Total Reply(0)
সাইফ ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৯:৫২ এএম says : 0
waoooo! LOVE IT................................!!!!
Total Reply(0)
taijul Islam ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৬ এএম says : 0
Alhamdullah
Total Reply(0)
jack ali ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০৪ পিএম says : 0
May Allah destroy Killer of Muslim,
Total Reply(0)
Woh... ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৬:৪৯ পিএম says : 0
Woh...
Total Reply(0)
Woh... ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৬:৪৯ পিএম says : 0
Woh...
Total Reply(0)
Woh... ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৬:৪৯ পিএম says : 0
Woh...
Total Reply(0)
Abdullah Selim ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:১১ পিএম says : 0
Russia,,, thanks
Total Reply(0)
jahurul islam ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:৩৩ পিএম says : 0
It's very good system , because at present -powerful country could not show their power,at a result it will balance to all country
Total Reply(0)
jahurul islam ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:৩৩ পিএম says : 0
It's very good system , because at present -powerful country could not show their power,at a result it will balance to all country
Total Reply(0)
jahurul islam ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:৩৪ পিএম says : 0
It's very good system , because at present -powerful country could not show their power,at a result it will balance to all country
Total Reply(0)
Md Mamun Ali ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৯:৪৮ পিএম says : 0
Very good america and Israel will destory
Total Reply(0)
Md Mamun Ali ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ৯:৪৮ পিএম says : 0
Very good america and Israel will destory
Total Reply(0)
Rakib hossen ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৩৭ পিএম says : 0
প্রত্যেকে নিজের স্বার্থ হাসিল করে,তবে বলা যায় না রাশিয়া কতোটা উপকার করবো ইরানের৷
Total Reply(0)
Md Mazid ২৩ জানুয়ারি, ২০২০, ৮:০৩ এএম says : 0
May Allah bless us all.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন