ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

মহানগর

মিতু হত্যা মামলা ঈদের লম্বা ছুটিতে রাজধানী ফাঁকা

প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : ঈদুল ফিতরের ৯ দিনের লম্বা ছুটিতে রাজধানী শহর ঢাকা এখন প্রায় ফাঁকা। প্রিয়জনের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করতে বাড়ি ফিরছেন দেশের নানা প্রান্তের মানুষ। সোমবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সড়কে যানবাহনের চাপ অন্যান্য দিনের চেয়ে অনেক কম। তবে ভিড় লক্ষ্য করা গেছে বাস টার্মিনাল, লঞ্চ টার্মিনাল ও রেল স্টেশনে।
সরকারের নির্বাহী আদেশে টানা ৯ দিনের ঈদের ছুটি গত শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকেই নাড়ির টানে ফিরতে শুরু করে মানুষ। এখনো সে যাত্রা অব্যাহত রয়েছে। তবে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবারই বিপুলসংখ্যক মানুষ রাজধানী ঢাকা ছেড়ে গেছেন। এ কারণে প্রায় ফাঁকা হয়ে গেছে প্রায় দুই কোটি মানুষের বসবাসের জনবহুল এ নগরী।
সোমবার কমলাপুর রেল স্টেশনে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, যাত্রীদের ভিড়ে মুখর স্টেশন এলাকা। গার্মেন্টেস ও বেসরকারি খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোর ছুটি সোমবার থেকে শুরু হওয়ায় তারাও বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে গতকাল থেকেই। পরিবারের সাথে ঈদ করতে চট্টগ্রাম যাচ্ছেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ইমামুজ্জামান। তিনি বলেন, আজ (সোমবার) থেকে আমাদের অফিস ছুটি হয়েছে। তাই প্রিয়জনের সাথে ঈদ করতে বাড়ি যাচ্ছি। অন্যান্য বছরের মতো সিডিউল বিপর্যয় না হওয়ায় ভালো লাগছে।
ঘরমুখো মানুষের প্রচÐ চাপ দেখা গেছে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে। সাহরি খেয়েই অনেকে চলে এসেছেন টার্মিনালে। বেলা সাড়ে ১১টায় দেখা যায় টিকিট না পেয়ে বাসের ছাদে করে অনেকেই বাড়ি ফিরছেন। প্রতিবছরের মতো এবারও পরিবারের সাথে ঈদ করতে বাড়ি যাচ্ছেন তৈরি পোশাক শ্রমিক মনিরুজ্জামান মোল্লা। তিনি বলেন, বাসের টিকিট নাই। তাই ছাদে যাচ্ছি। তবে ভাড়া কম হওয়ায় অনেকে ছাদে বাড়ি ফিরছে।
ঢাকার আশপাশের জেলাগুলোতে যাওয়ার জন্য মহাখালী ও গুলিস্তানে ভিড় বেশি দেখা গেছে। তবে সার্বিকভাবে এবার ঈদ যাত্রায় এখন পর্যন্ত তেমন ভোগান্তি ছাড়াই মানুষ ঢাকা ছাড়ছে।
সকাল সাড়ে দশটায় মৌচাক, বেলা সাড়ে ১২টায় কারওয়ান বাজার, দুপুর ১টায় শাহবাগ, প্রেসক্লাব, পল্টন, গুলিস্তান ঘুরে দেখা যায়, এসব সড়কে যানজট নেই। মানুষজনও কম।
জানতে চাইলে বিকল্প বাস সার্ভিসের চালক শহিদুল ইসলাম বলেন, এক ঘণ্টার মধ্যে মিরপুর থেকে মতিঝিল এসেছি। রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা যেমন কম, তেমনি যাত্রীর সংখ্যাও কম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন