ঢাকা, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ভারতের প্রতিরক্ষা ধ্বংসে পাকিস্তানের নতুন হাতিয়ার রাদ-২

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৭:২৫ পিএম


পাকিস্তান মঙ্গলবার তার সর্বশেষ রাদ-২ ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা বিমান থেকে সফলভাবে সম্পন্ন করেছে। এর পাল্লা ৬০০ কিলোমিটার। সামরিক বাহিনীর আইএসপিআর মিডিয়া শাখার তথ্যমতে, দেশে তৈরী রাদ-২ পাকিস্তানের কৌশলগত সক্ষমতা অনেক বাড়াবে। এই অস্ত্র আরো নিখুঁতভাবে তার লক্ষ্যকে ভেদ করতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

ভারত তার ক্ষেপনাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা আধুনিকায়ন করার উদ্যোগ গ্রহণ করার প্রেক্ষাপটে রাদ-২-এর পাল্লা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে রাশিয়ার তৈরি এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র পেতে যাচ্ছে ভারত। ওয়াশিংটনও সম্প্রতি ভারতের কাছে নতুন প্রতিরক্ষাব্যবস্থা বিক্রি করার কথা জানিয়েছে। লেখক, বিশ্লেষক ও পাকিস্তান বিমান বাহিনীর সাবেক পাইলট কায়তার তোফায়েল মনে করেন, এস-৪০০-এর মোকাবিলায় রাদ-২ দারুণ একটি হাতিয়ার।

পাকিস্তানের পরমাণু কর্মসূচির বিশেষজ্ঞ ও সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের সিনিয়র ফেলো মনসুর আহমদ মনে করেন, রাদ-২ হলো ভারতের নির্ভয় ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পাকিস্তানি জবাব। তিনি মনে করেন, পাকিস্তানের কৌশলগত বাহিনীর অপারেশনাল ও টার্গেটিং শক্তি বাড়িয়ে দেবে রাদ-২ ক্ষেপণাস্ত্র। তিনি বলেন, অনেক দূরের নিরাপদ অবস্থান থেকেই স্থল ও সাগরের গুরুত্বপূর্ণ সামরিক লক্ষ্যস্থলে হামলা চালাতে পারবে রাদ-২। এর পাল্লা বেড়ে যাওয়ায় এবং লক্ষ্যভেদে আরো নির্ভুল হওয়ায় এটি আরো কার্যকর হবে। এটি হতে পারে পাকিস্তানের ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের একটি ভালো বিকল্প।

রাদ-২ প্রথম সামনে আনা হয় ২০১৭ সালে পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের কুচকাওয়াজে। ওই সময়ে এর পাল্লা ছিল ৫৫০ কিলোমিটার। এর ডিজাইনে কিছু পরিবর্তন ঘটিয়ে পাল্লা বাড়ানো সম্ভব হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, রাদ-১-এর পাল্লা ছিল ৩৫০ কিলোমিটার। রাদ-১-এর ছিল জোড়া লেজ। আর রাদ-২-এর যে ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে এর জটিল এক্স কনফিগারেশনের বিষয়টিই ফুটে উঠেছে। এর ফলে ক্ষেপনাস্ত্রটির পাল্লা বেড়েছে। সম্ভবত পাকিস্তানের পঞ্চম প্রজন্মের জঙ্গিবিমান তৈরির প্রজেক্ট আজম থেকেই এই ধারণাটি পাওয়া গেছে।

বর্তমানে মিরেজ ৩ বিমান দিয়েই রাদ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা সম্ভব। তবে পাল্লা বৃদ্ধির ফলে এখন পাকিস্তানের ভেতরে থেকেই এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে ভারতের গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্যবস্তুতে হামলা করা যাবে। উল্লেখ্য, লাহোর থেকে দিল্লির দূরত্ব ৪৩০ কিলোমিটার। আবার রাদ-২-এর নক্সা নতুন করে করায় এগুলো মিরেজের বদলে জেএফ-১৭ বিমানে ব্যবহার করা যেতে পারে। উল্লেখ্য, পাকিস্তান বিমান বাহিনীর মিরেজগুলো পুরনো হয়ে গেছে। আর জেএফ-১৭-এর নতুন নতুন চালান পেতে যাচ্ছে পাকিস্তান বিমান বাহিনী। ফলে রাদ-২ পাকিস্তানের জন্য বেশ ভালো বিকল্প তৈরি করবে। সূত্র: এসএএম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Mohammed Kowaj Ali khan ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৭:৪৯ পিএম says : 1
এই আর সেই দরকারী কিন্ত এত দিনে বারমা, ভারত, চিনকে ধংস করিয়া দিতে সক্ষম হইতাম যদি আমরা ইসলাম হইতে পারিতাম। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(1)
Md Habib Hasan ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৮:৩৪ পিএম says : 4
You are not Islamic, but Terrorist.
Mohammed Kowaj Ali khan ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৭:৪৯ পিএম says : 1
এই আর সেই দরকারী কিন্ত এত দিনে বারমা, ভারত, চিনকে ধংস করিয়া দিতে সক্ষম হইতাম যদি আমরা ইসলাম হইতে পারিতাম। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৭:৪৯ পিএম says : 1
এই আর সেই দরকারী কিন্ত এত দিনে বারমা, ভারত, চিনকে ধংস করিয়া দিতে সক্ষম হইতাম যদি আমরা ইসলাম হইতে পারিতাম। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৭:৪৯ পিএম says : 1
এই আর সেই দরকারী কিন্ত এত দিনে বারমা, ভারত, চিনকে ধংস করিয়া দিতে সক্ষম হইতাম যদি আমরা ইসলাম হইতে পারিতাম। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৭ এএম says : 1
এই আর সেই দরকারী কিন্ত এত দিনে বারমা, ভারত, চিনকে ধংস করিয়া দিতে সক্ষম হইতাম যদি আমরা ইসলাম হইতে পারিতাম। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন