ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

হোম কোয়ারেন্টাইনে আরো ৬৩৮ জন

আইসোলেশনে ৩০ জন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০২ এএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধের অংশ হিসেবে দেশে এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষের সংখ্যা ৬৭ হাজার ৪৪৮ জন। এর মধ্যে সম্পন্ন করে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৫৭ হাজার ১৩২ জন। আরও ১০ হাজার ৩১৬ জন কোয়ারেন্টাইনে আছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনসহ হাসপাতাল ও অন্যান্য কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৬৩৮ জন। গতকাল সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আইসোলেশনে এসেছেন ৩০ জন। এখন পর্যন্ত সারাদেশে আইসোলেশনে থাকা ব্যক্তির সংখ্যা ৪৭৩ জন। এর মধ্যে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৩৩৬ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৩৭ জন। বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১১৪ জন।

যশোর : যশোরে গতকার পর্যন্ত জেলার কোথাও করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খবর নেই। মোট ৪৭ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকা আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছিল, রিপোর্ট পাওয়া গেছে মোট ২২জনের। তাদের সবারই রিপোর্ট নেগেটিভ। কারো করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি নেই। যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন মঙ্গলবার দুপুরে এই তথ্য দিয়ে জানান জেলায় নতুন করে ৩ ১ জনসহ মোট ২হাজার ৫শ’ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। ৭০জন রয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে।

বরিশাল : গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণাঞ্চলের ৬টি জেলায় আরো ৭২জন যুক্ত হবার মধ্যে দিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইন থাকা প্রবাসীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩ হাজার ১৪৫ জন। এসময় সুস্থ্যবস্থায় ২ হাজার ৯৬৯ জন কোয়ারেন্টাইন শেষ করেছেন বলে বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে। বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং ভোলা ও পিরোজপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ২৫জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানান হয়েছে।

রাজশাহী : রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে সাতজন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এই সাতজনের মধ্যে চারজনকে সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে এবং তিনজনকে হাসপাতালের পর্যবেক্ষণ ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। গতকাল মঙ্গলবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও করোনা চিকিৎসক সমন্বয় কমিটির আহবায়ক ডা. আজিজুল হক আজাদ বলেন, ওই চারজন রোগীর নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। তাদের ভাইরাসের উপসর্গ রয়েছে।

কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামে গত ২৪ ঘন্টায় ১০ জনসহ ৩০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়া করোনা ভাইরাসের উপসর্গ থাকার সন্দেহে গত ৪ দিনে জেলার ৮ উপজেলায় ১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে এখনও কারো নমুনা ফলাফল আসেনি।

সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ২৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইসিডিআরে প্রেরণ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। গতকাল সকাল পর্যন্ত এদের মধ্যে দুই জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছেছে। দুটি রির্পোটই নেগেটিভ। এছাড়া ভারত থেকে আসা ১৩ জন পাসপোর্ট যাত্রীকে যুবউন্নয়নে প্রাতিষ্ঠানিক করেন্টাইনে ও ৩ হাজার ১ শ’ ১১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

ঝালকাঠি : ঝালকাঠিতে নতুন করে চার জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। জ্বর, সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত এ দুইজনের নমুনা সংগ্রহ করে মঙ্গলবার সকালে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলায় দুইজন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনসহ ৬১ জনকে হোমকোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। আইসোলেশনে থাকা তিনজনসহ হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৩৪ জনকে ছারপত্র দেওয়া হয়েছে। মোট হোমকোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা হয় ১৭৯০ জনকে। মোট ছারপত্র প্রদান করা হয়েছে ১৭২৯ জনকে।

চাঁদপুর : চাঁদপুর জেলায় করোনা টেস্টে আরো ৭ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। গত শনিবারের ৪জন ও রোববারের ৩জনের ফলাফল। এ নিয়ে চাঁদপুরে ১৭জনের করোনা টেস্টের রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। যাদের সবাই করোনামুক্ত।

গফরগাঁও : গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ ৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে সাতজনের নেগেটিভ ফল পাওয়া গেছে। দুজনের রেজাল্ট এখনো পাওয়া যায়নি।

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় বিদেশ ফেরত ১৬৭ প্রবাসি হোম কোয়ারেন্টাইন পালন করছেন। গত সোমবার বিকেলে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুশান্ত বৈদ্য এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন এ পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ ফেরত ১৬৭ জন প্রবাসিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে এদের মধ্যে ১০২ জন ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন পালন করে রিলিস হয়েছেন, বাকি ৬৫ জন এখন পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইন পালন করছেন এবং চার জনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে।

নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে পাঁচজনের নমুনা সংগ্রহ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার ওই ৫জন সন্দেহ ভাজন উপজেলার সদর, ভলাকুট ও চাতলপাড় ইউনিয়নের বাসিন্দা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন