ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

করোনা টেস্ট ল্যাব স্থাপনে পটুয়াখালীবাসীর দাবি

পটুয়াখালী জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

এপ্রিলের ৯ তারিখ পটুয়াখালীতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর মাধ্যমে শুরু হয়ে গতকাল ২৪ জুন সকাল পর্যন্ত আড়াইমাসে জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা দাড়িয়েছে ২৫৫ জনে। ইতোমধ্যে এ রোগীদের ১৫ জন মারা গিয়েছেন। যতই দিন যাচ্ছে ততই বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। জেলার সচেতন নাগরিকগণ মনে করেন করোনা শনাক্তকরণে বিলম্ব জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

পটুয়াখালী সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ জুন পর্যন্ত পটুয়াখালী থেকে ৩৬৫৩টি নুমনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়, এর মধ্যে ২৮৮৪টি নমুনার রিপোর্ট গতকাল পর্যন্ত পাওয়া গিয়েছে। যার মধ্যে ২৬৩৪ জন নেগেটিভ এবং ২৫০ জন পজেটিভ।
বরিশাল বিভাগের ৬টি জেলার একমাত্র ল্যাব বরিশাল মেডিক্যাল কলেজে। ল্যাবের সীমাবদ্ধতার কারণে সেখান থেকে অনেক সময় টেস্ট করানো সম্ভব হয়না। তখন পাঠানো হয় ঢাকায়। যার ফলে রিপোর্ট আসতে সময় লেগে যায় ৫/৬ দিন।
পটুয়াখালী-১ আসনের এমপি এড. মো. শাহজাহান মিয়া গত ৭ জুন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব বরাবরে পটুয়াখালীতে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের অনুরোধ জানিয়ে ডিও লেটার প্রদান করেছেন।

জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ভিপি আবদুল মান্নান বলেন, আমি আমার নমুনা দেয়ার ৭ দিন পরে রিপোর্ট পেয়েছি, পটুয়াখালীতে করোনা শনাক্তকরন ল্যাব থাকলে এ বিলম্বটা হতো না। ইতোমধ্যে আড়াই শতাধিক পজেটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ সংখ্যা আরো বেশী হবে। পটুয়াখালীতে ল্যাব না থাকার কারণে রিপোর্ট পেতে বিলম্ব হচ্ছে, এটা সাধারণ মানুষ জেনে গেছে, ফলে তার নমুনা দিতে অনাগ্রহ প্রকাশ করছে। অতিদ্রুত করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব পটুয়াখালীতে স্থাপনের মাধ্যমে অসুস্থদের শনাক্ত করা হোক। না হলে এ মাহামারী ভাইরাস ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে যাবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন